প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভারতের বিজেপি শাসিত তিন রাজ্য থেকেই বেশি গরু আসছে বাংলাদেশে, প্রতিদিন আসাম থেকেই আসছে ১২০০ কোটি টাকার গরু

মাছুম বিল্লাহ: [২] পশ্চিমবঙ্গ থেকে বাংলাদেশে গরু পাচারের ‘চারণক্ষেত্র’ বলে অভিযোগ করে আসছে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি। এ জন্য তারা রাজ্যটির ক্ষমতাসীন দল তৃণমুল কংগ্রেসকে দায়ী করে আসছে। কিন্তু ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বিএসএফের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এই মুহূর্তে বাংলাদেশে পাচার হওয়া প্রতি ১০টি গরুর মধ্যে আটটিই সীমান্ত পার করছে বিজেপি শাসিত আসাম, ত্রিপুরা, মেঘালয় ও মিজোরাম রাজ্য থেকে।

[৩] ভারতের বর্তমান পত্রিকা বৃহস্পতিবার এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। সেখানে বলা হয়েছে, এই তিনটি রাজ্যের মধ্যে সবচেয়ে বেশি গরু পাচার হচ্ছে আসাম থেকে। প্রতিদিন এই রাজ্য থেকে ১০০০ থেকে ১২০০ কোটি টাকার গরু পাচার হচ্ছে বাংলাদেশে।

[৪] আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা জানিয়েছেন, গরু পাচারে প্রতিদিন হাজার কোটি টাকার কারবার হচ্ছে। এই পাচার ঠেকাতে আসাম সরকার আগামী বিধানসভা অধিবেশনে ‘গোরক্ষা বিল’ আনছে।

[৫] ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বাংলাদেশ লাগোয়া ৪০৯৬ কিলোমিটার সীমান্তের মধ্যে আসাম, ত্রিপুরা, মিজোরাম ও মেঘালয়ে রয়েছে মোট ১৯০০ কিমি। চলতি বছরের জুন মাস পর্যন্ত ওই চার রাজ্যের সীমান্তে পাকড়াও করা হয়েছে ৯ হাজারের বেশি গরু। এই পর্বে হাজার হাজার গরু আসাম ছাড়াও ত্রিপুরার বিলোনিয়া, সিপাইজলা, খোয়াই, কমলাসাগর, মেঘালয়ের ইস্ট খাসি হিলস, ওয়েস্ট জয়ন্তীয়া, সাউথ ওয়েস্ট গারো হিলস এবং মিজোরামের পারভা এলাকা দিয়ে বাংলাদেশে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তবে আসাম নিয়ে বেশি মাত্রায় উদ্বিগ্ন হেমন্ত বিশ্বশর্মা সরকার গত ১০ দিন ধরে গরু পাচারকারীদের বিরুদ্ধে বড়সড় অভিযান চালাচ্ছে। কিন্তু তাতেও পাচারের মাত্রা না কমায়, চিন্তায় কপালে ভাঁজ পড়ছে বিজেপির নেতাদের।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত