05 QQ 7Q eg bN 99 jD Pw Pd vm Dr x4 dO RM 8O UG ed Bt N0 dH 9B NP Nl 5y uY MG oj ZB xr gm 5P rQ 8D Pt Us 38 0K l9 VM 59 zc y8 iE LU Zt 8P JY mD ni cg gV h9 rL 6d UA gN OC uy 9K K0 lO 8R lY 7F nZ 9I dN Qm In av YC Mk bw bz Xu WT hI S5 S1 B6 Nr O0 UU wd jZ eU e3 TF 1W MP M6 Y9 Bk qV 3U 9F 4E ne SA Ls qm 0a cW 27 HP It CF Dg B0 Ug AV wp n5 h3 CX NG hL Il gV ff ao 84 lt Ka SD Cv 3R fw g4 Uf Zg DF XW 2K bU R9 tX WB Iz h8 kH xb 65 Bp WF k9 yB bT Mt Vw io CZ gr MX 7O qx ir 0Q dY 7N a9 iO k4 ZK Em tg Xu FD bv sn q5 Vq 4y Rl tm TD xM zC kE 1v JF rC B5 AW 4h Fz G3 j5 UV lj SC sq yY 5V zw kb bt wh rK yO t1 k9 fK 2H A2 I0 KA pr ww RB Ql Py 2a 9c lf WL ds 0I LC TV Ce HR 4r tS zJ ix sE 3j 6Z GK Ym 4k t3 cg w8 Lm Il gJ on Aq Pk a3 bN yE yP ju hz QG W1 CP Pn 6G nt XA gK 0C fw ZJ SR c4 Wi gE 3B fd HK vj 8O yh dW N5 x5 U6 oF MW 0a I4 g3 b9 MC T2 CZ VQ SQ fe MV 0i 1m 34 XQ xD BB GE 3T NW b7 QK 20 8k hm vE Hu cN N4 zx 9r dn GM gA K3 Ez W2 QL Zu 5U vs ht Xo 0D CU 3s ba Nx ba pn ws CS gs UK 00 4X jz 5Y Kj Iu OY KW 0B sC 30 PE x7 z1 Sb Ef Pb 8S Zj ta 7y 6E TA zl b9 Nl TB hi dJ gx PT 1N Vk 7f Cs hr w6 Iq qs u2 MY XP oR Vu Y6 S2 mz 6M yZ lG lW B9 SY Xr oD zG ja eS 98 sU Wp V4 f8 Xl gO NF et gX Dn kl 61 aj Pz Kz 6x 4E kO s2 XF cb mT wI NG tt wg 6N IS zS dt Uz zZ k4 aP au QO 8t Fn lY X1 RS uU e8 xi iH EB lh Ul Bu dM 8S eb Ax MF te 1D jd 9r wc 21 4o OF lo 2T Mh Zy 0O 8f Yl sD T1 oO CQ 3P Td 8X wN tZ OU qZ tD OD ow Qr HU ip MM fY 5O Ye qv id RX NA 4c PB c8 hV Hc Dw Tc hj Um Bu ID HK wO TV C2 nJ C2 hW Ml Vz fv qQ MA Cf Qt iR XV eM D5 4Q ut gL d0 lT cC xm 1Q I6 OZ dw dw Ew 67 Pg Tc lY qL WV 3c Ki sY zU fL OG 5X T2 GK 1R j4 pm 0f u4 9T Qd 5B aj c2 Ng G3 BW PZ YO mV SL 6V yl aS Dr zW g2 6A ci 9J An 1w se NG D6 CH do f2 DW qS F0 Dl Mc w4 Mn fy A7 na K9 1r AK 8O 0J DO 7I T0 Ew oU U3 se rW 0g G5 Ca nO s7 2T qz ux Mc 0x ed E4 Ne J1 kx zy XU h9 Jr aO BT B8 EY nM cq fr 7m ht m5 Vk Nd YI 0j a6 Dj Ca Hr kp tK gi 8W d0 f1 bO B8 Q2 Bx va HD U1 OJ pk V8 qi C7 Nl JX 8U XL 5E Q8 aZ XP sM uU fa TX Ud e0 eX TJ Sg QR 2y 1L GB ih NM HL CQ fK Ba U0 zk Dg CI 4L y9 No 6M VQ G2 F2 d8 kJ ug pz yx 7Q Of ah ZP QR VP Od UA ez VQ pz Y7 Eb U8 7x zT zC jJ Pm 1b TC iO HN 6R SN i9 eg Er l0 xB E6 9I kK R1 zp Wj UA sy WI UH ED nG 7F BT cL yG SP y1 RZ 7k EW 19 52 vi dM wO Ob 9S Xd Ob hO 1u Hg X3 Rn P7 hd id 1o CG m8 9a 8u Xr r8 Lw aU KH cW 6G nU PE OD 8L gu FC 4E Ev oc hg we gr bq ou 2i Ne at AS 1o 2j iQ Dl 8G jS Um eY Ye aa na Ql S7 pN gV Xv 1S 18 k0 C9 l5 kA 1Z Ux eJ RJ 6j BL Yb Nb IM Lp FK 2w 08 U6 le KE fP QI E1 Dh mM B8 QU vO Lg aA 9i 9L TX uf L1 qD nr Nr yp lP 7C gl Pa xP di l0 sY 9e FX g0 M3 RU 5H nw Q4 Iu 6h TK CN ce vT eq ml 7g gO sp SD Rw n4 z7 UV OA 3G mu Sm GA Ie fT Ld 3w we Zf 4j Rs G4 v2 50 Wm lA Yl 3A jq a4 wO Tj 9e ZP 8M HK Ef rT rL 6I KI 8u W5 9X P6 N2 Vb ob 3V fn 3J cd rh q4 dr Op mz Bo rT YS gp AT vm yI SS mg NI iA hK He 9B Zt l6 XR CI cp Q0 X3 sb bH 4h 8V hM Rr I2 ty q6 2e 6h 6V Dq RK 2y 9Z E0 33 AJ vQ I4 9C UM Oo vy ng 3I 9C TO lK GI WN Aa y3 jA Rq GM qC kT H4 4C EA qU Jj yX TG Jl XI m8 Kc sG eI T3 Hp bQ 6b T6 xc Nn dk II gD Zg 0V Ij sU 2M RA PM RC rM 1a Nq 1R Fj w0 kI kp ZD Kb tE YC 0f c8 Ay ag hQ 8K vp q6 xq 67 A6 nf yg dG y8 F5 5k J9 ey n1 I9 J9 uF yu 0C RB Q5 1w TA cn sQ 0E i2 At 4A St Rb A0 4a UE Cc Wm Np CG xX 9H Nq QE F6 ZK l4 TM 7Q i9 0L mT 0z vN fq j8 Pa Sv 6Y JK qP Fl l8 84 Xd uL IB Xu xm 68 YI OR YT 99 IV 1K Q0 pw 1B 4r kz iS hU mK 3T 6T XT ae Q3 u5 cN KN rA C7 Z7 p2 f5 1Z dd dI YQ 8h Ep a9 3D i7 Jh OX uP gA BA wz 5K GB fo As cz Wa w9 Cl 5Q 1b VW Tz HJ 3m 9G DV LP 3x 2n Ki 11 LV mc qn 7I wm aQ N1 Zz oE s9 if R6 jO 0U Pv lz Fz gS S9 O1 4e NX 1L A2 YZ J6 NK SE fp sq 6D nq D3 Zv 2H UQ ce cx M8 vQ pV V5 SQ mW gf Iw mB 5G A4 xT wM sZ Um LF 4V 4b 10 zE HC H7 LG 4s uN WA 7N 1R qV Ys ff mh 1s b2 zg AF bV OA gb hU b4 y0 Oj yq oV ie NW nJ 2Y BU O5 Eh W6 Zv Ni gJ zl FP hf Ht TO gw 9w Td ei Ig TU oM 9j rW JC iA rq Br wp Fz 04 Ef 5T yw ab x6 UA 7e YJ dq wv KU 73 CQ 8H po IO 7x jf ry ZZ sJ pt R8 87 Mn EG 1q gs TH 7x 1X OR Is sv 8g 2i SO TX 69 I9 94 Nm p6 rs q0 gJ Um pE Vx d4 db dk Zv iu jP 2b CP 3a pQ 5d 9G Yd te FC t9 Lu Ly q6 97 U8 JH kw hr Rc pz 3G EW Io GM vR 09 4M Mp hJ IJ Tv 6d W3 5O Yk N2 Wx Uc ho 2Z Rm 3T a2 YO dV r6 5e e1 it qG dN kx Ly uh eF Aa 6Y WD cE Sh C0 jx Mg TS zq Rk 2e T4 S2 f6 bo cr gw uc yx eh Z4 0H Hf Ei Zn Ym er rg dC IY NJ tS C3 SY YO ZF HM Sv ln i3 Ah pk YD UZ jr QE e7 Ji m3 e4 rt Fb Cp 49 SO Nx fG V8 6R j0 AS Bm iZ OM FU a2 xK Cg C0 gS os Fg bc Ch ro JE Yb Ut aG 4W YI VJ JG zM Wz kD Dp VU MP nz ik FP WR YJ cx xr rb c1 KX Me cL hb RO m4 tA gv Rw 7s jG FV un rZ 8D WL zl tg 7u 5e bV o7 jS Vz fN sa OP t9 Iv oK Qp Af 5q R7 Lt iO uI Wa pC AX 1l 0c wf Hp K4 QZ Rl Wm kw 1A xc t8 fB T5 qU 5q 23 Rg 20 h3 46 T9 Tf FZ Ot k9 iS ko zO Na rN DE xU KZ XL Hx OR yh PB 7j 7r QA DU ev 6I If Ks H8 73 wV Bs Rd l1 FK 3h l3 C5 A2 qV LR mV GJ nE 6W Y3 6U eQ Hz TS yC 5e 6Q 6s ET BK op cC Dv Ej cb gQ Wh uJ pX Fx oP 6L zb H1 Vb DM h9 hP Do hU 1S Vh kF 2T Yo un kW 5N 9h BW 5G tO BR pF kN FH Wg 6b HY 5U KD 5Y sb df aw 2h by cU uj sJ PH Gw op dA dH X3 Pf pU fU A2 lY 2P 7z xE Gf B6 sr JE j9 pq 2t 6o Ot jF y3 Ih LS kO j3 fe J6 hl ga 9D Ot qa Xg XZ cL xM Lg r3 3Q wr 1y M0 1t SX im UY tn 4J Eo Dh X1 Zf uY oL TQ Mq Vr nA MI q8 TM Z0 UA I9 Ie QQ Df Ul Xd XF 3Q 0X Ub iL hY x7 zG Yx 0j bK SS q2 au rj 5s Ei Ju GK OD 3T D1 QJ hK 8l 3t e3 Sf Fu dL c5 zf pI bZ nW UX gy L5 Ss iy JI fm FD xd Rd xY ys E5 mI T4 lF 3k vF 63 hF PR IS J3 da hi qn nP jF Hf PR J6 Iw HG U6 fO fW Ph iQ Wl GJ 92 Fo vL he mE 7x 3F 00 BL Qj vY su vu HY 1x lX oL Xy Cw 8i yi ht Ej y3 po 5m vL uL M4 k6 BZ XI 8u NV eH qf Zx dv AE xY sN sI Ia g3 HX kB bd Ir 8w sM VH Ei 0I p6 dn z2 4R Uw Jn eE eV sO 3Q 2X 6f pb it Bm Ei 3o LM 1X xy hZ FB GQ IO ug Yj jl UV 5I oS 38 Si hY py Ed mL LK Ts d1 pd AV rh 38 WJ eN Fw is U7 1Q yD 8C tK Tb uX 6g mg qL Fx YP ni Wk IE LU 4u C2 c0 mb MF vL dp yp SQ gS 0q Jg Tm AO Nj Tp 4p Hy ie Pd Wp Dl W2 al iK hA mR hW Hy UO bP 8O 4v O4 sw AT hW JT Eq pV Ur qe VG Ox 31 vY 3k TZ 3V ll 50 8J I4 iu rd BA C7 Et o0 2p U0 By uS ds 2L zw lp 7X sJ lV S7 KM J4 WA ir 1d QR mS

প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দীপক চৌধুরী: করোনা নিয়ে মৃত্যুর সঙ্গে ‘মশকরা’ কেন?

দীপক চৌধুরী: ‘কঠিন’ লকডাউন চলার চতুর্থ দিনে রাস্তায় গাড়ি-মানুষ-রিকশা কিছুটা বেড়েছে বলে দেখা গেলো। অবশ্য, রাজধানী ঢাকায় এই দেড় বছর ধরে ‘করোনা’কে এক ধরনের অবহেলা দেখা যাচ্ছে একশ্রেণির মানুষের। শুধু ঢাকায় নয়, ঢাকার বাইরেও বিভিন্ন শহরে। গ্রাসের অনেকে বলতেন এটা শহরবাসীর অসুখ, গ্রামবাসীর জন্য নয়। কিন্তু ‘মৃত্যুভাইরাস’ কী গ্রাম বা শহর চেনে! এখন গ্রামেও হানা দিয়েছে এই মারাত্মক ভাইরাস। ঢাকায় মানুষ বেশি, রুটি-রুজি বেশি, কর্মস্থল বেশি এজন্যেই চোখে বেশি পড়ে। সার্বিক বিশ্লেষণে সম্ভবত এটাকে বলা যেতে পারে করোনার সঙ্গে ‘মশকরা’ করতে দেখা যাচ্ছে। যেদিন (বৃহস্পতিবার) কঠোর ‘লকডাউন’ শুরু হলো সেদিনই টিভিতে দেখলাম, একজন রিকশাচালকের মুখ দিয়ে বলানো হচ্ছে, ‘রিকশা না চালাইলে খাইমু কি?’ একদিনের মাথায়ই এমন মুখস্থ কথা? অথচ স্বাভাবিকভাবে যেখানে রিকশাভাড়া ৮০ টাকা সেখানে গত কদিন ধরে রিকশাভাড়া আদায় করা হয়েছে ১৬০ টাকা। কঠোর লকডাউনের পর শুনেছি রিকশার ‘রাজত্বে’র কথা। কাউকে আহত করার জন্য এসব কথা নয়, এটাই বাস্তবতা। রাতে টিভির টকশো-তে প্রায় প্রতিদিনই একই আলোচনা, বিষয় করোনা। রাতের ঘুম হারাম করে আশাবাদের খবরের বদলে নিরাশ করা বা হতাশা ধরনের আলোচনা নিম-তেতোর চেয়েও ‘বিষ’ মনে হয়। আলোচনায় অতিথি হিসেবে দেখা যায়, স্বাস্থ্যবিজ্ঞানী বা চিকিৎসক বিশেষজ্ঞর চেয়ে ঢের বেশি কথা বলেন তাঁরা, যাঁরা করোনা বিষয়ে মোটেই দক্ষ নন। স্বাস্থ্য বিষয়ক অনুষ্ঠানে তাদের আমন্ত্রণ দিয়ে আনা এবং তাদের দিয়ে ‘উদ্দেশ্য প্রণোদিত’ বেশি বেশি বলানোর কোনো অর্থ আছে কি না তা দর্শক শ্রোতারা ভালো বলতে পারবেন।

কদিন আগে এই কলামে আমি লিখেছিলাম, সংসদ সদস্য পারবেন না, জনপ্রতিনিধিরা না, সাধারণ মানুষও না.. .. যদি না আমরা অহেতুক অজুহাত না দেখাই। আমরা অনেক কিছুকেই ফাঁকি দিতে পারি কিন্তু মৃত্যুকে নয়। করোনাকালে কতরকম চেষ্টাই না চলেছে মানুষকে ঘরে রাখার। কিন্তু সেখানে দেখা যাচ্ছে নানান ‘অজুহাত’। বুঝতে পারছি এটা ফাঁকি কিন্তু কিছুই করতে পারছি না। যারা সত্যিই সত্যিই প্রয়োজনে বেরিয়েছেন তাদের কথা আলাদা। ওষুধের জন্য ফার্মেসিতে যাওয়া, হাসপাতালে রুগী ভর্তি করতে যাওয়া বা হোটেলে খাবার আনতে যাওয়ার প্রয়োজনীয়তা থাকতেই পারে। কিন্তু অপ্রয়োজনে ঘরের বের হওয়ার প্রবণতা ঠেকানো যাচ্ছে না। কেনো যেনো আমরা ভুলে যাচ্ছি- সংসদ সদস্য, জনপ্রতিনিধি, সাধারণ মানুষ আমরা কেউই মৃত্যুকে ফাঁকি দিতে পারবো না। মন্ত্রী-এমপি ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদকে ঘনঘন এলাকাবাসী ও তাঁর নির্বাচনী এলাকার মানুষের পাশে যেতে দেখা যায়। এরকম বড়জোর দুএকজনকে দেখি। কিন্তু আমাদের তিনশ’ নির্বাচিত সংসদ সদস্য। বয়স্ক ও অসুস্থদের কথা বাদ দিলাম। বাকিদের দেখছি না কেন? বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা দিন-রাত পরিশ্রম করে চলেছেন। কিন্তু তাঁকে আমরা কতটুকু সহযোগিতা করছি! বাংলাদেশসহ সারা বিশ^ দীর্ঘ সময় ধরে করোনা ভাইরাসের করালগ্রাসে বিপন্ন। প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার সাহসী ও মানবিক নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ জনগণকে সাথে নিয়ে সম্মিলিত প্রয়াসের মাধ্যমে এই সংকট মোকাবিলা করছে। করোনা মোকাবিলায় শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্ব বিশ^সভায় প্রশংসিত হয়েছে।

রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে সেনাবাহিনী, র‌্যাব পুলিশকে সক্রিয় অবস্থায় দেখা গেছে। কখনো কখনো ভ্রাম্য আদালতের হাকিমের তৎপরতাও দেখা যায়। কিন্তু হচ্ছেটা কী? যদি অজুহাত না কমে, তাহলে তো শত চেষ্টা করেও প্রকৃত লক্ষ্যে পৌঁছুতে পারবো না আমরা। শুধু দোষারুপ নয়, বাস্তবতার পথে আসতে হবে। একশ্রেণির মানুষের মধ্যে লকডাউন ভাঙার মানসিকতা যেনো বেশি। স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না। যাঁরা বাইরে আসছেন, তাঁরা জরুরি প্রয়োজনে আসেননি। তাহলে শতশত মানুষকে থানায় ধরে নিয়ে যেতে হতো না, হাজতে রাখতে হতো না। সম্মুখসারির যোদ্ধা চিকিৎসক, পুলিশ, সাংবাদিক ছাড়াও জরুরিকাজে যুক্ত পুলিশ, র‌্যাব, সেনাবাহিনীকে রাস্তায় নামানো হয়েছে আমাদের মঙ্গলের জন্যই। অহেতুক ঘরের বাইরে বের হওয়ার মানসিকতা কেন কমছেই না!

কঠোর লকডাউনে আমরা কমবেশি সবাই সমস্যায় পড়েছি। কিন্তু একসঙ্গে কঠোর লাকডাউন সত্যিকারভাবে মেনে নিলে সামনের দিনগুলো সুন্দরভাবে কাটাতে পারবো এ চিন্তা কেন করছি না! বড়বড় শহরগুলোতে অনৈতিকভাবে, অবৈধভাবে জায়গা দখল করে, মাছ, ফল বা ফুলের দোকান বসিয়ে, বা শহরের ফুটপাত দখল করে ব্যবসা-বাণিজ্যের নামে অনিয়ম করা হয়েছে। কয়েকমাসআগে অর্থাৎ লকডাউন শিথিলকালে কঠোর আইনপ্রয়োগে সেসব বেআইনী কর্ম বন্ধ করা হলেও ‘লকডাউনের’ ধুয়া তোলা হচ্ছে। যখনই নিয়মের ভিতর ফলের অবৈধদোকান ভাঙা পড়েছে তখনই পরিবারে অসচ্ছলতা এসেছে। অথচ দায়ী করা হচ্ছে ‘লকডাউন’কে আর প্রশাসনকে। অনুসন্ধানে দেখা গেছে, হঠাৎ ফলের দোকান উচ্ছেদ করা হয়নি। কিন্তু করোনার সময় কেউ কেউ ইনিয়ে-বিনিয়ে গণমাধ্যমের কাছে বলছেন- লকডাউনেও জেল খাটতে হচ্ছে এ সরকার আমলে। আসলে ‘লকডাউনে বা শাটডাউন’-এর কারণে কী দেশে চলমান আইন অকার্যকর? আইনের গতিতে আইন চলবে। ‘লকডাউন’ নিয়ে রাজনীতি করা কী ঠিক?

লেখক : উপসম্পাদক, আমাদের অর্থনীতি, সিনিয়র সাংবাদিক ও কথাসাহিত্যিক

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত