শিরোনাম

প্রকাশিত : ০১ জুলাই, ২০২১, ১১:২৮ দুপুর
আপডেট : ০১ জুলাই, ২০২১, ১১:৩৪ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

[১] গোপালগঞ্জে আড়াই ঘণ্টার বৃষ্টিতে ভেঙ্গে গেলো প্রধানমন্ত্রীর উপহারের দুটি ঘর

আসাদুজ্জামান বাবুল:[২] টানা আড়াইঘণ্টার বৃষ্টিতে ভেঙ্গে পড়েছে মুজিব বর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের (আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ এর প্রথম পর্যায়) দু’টি ঘর।ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে গোপালগঞ্জ জেলার সদর উপজেলার মধুপুর গ্রামের মধুপুর প্রকল্প এলাকায়। সরকার কতৃক বরাদ্দকৃত ঘর ভাংগার খবর পেয়ে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ খবর ছড়িয়ে পড়ার পর বিভিন্ন গনমাধ্যমের সাংবাদিকরা সেখানে ছুটে যায়।

[৩] এ সময় ভেঙ্গে পড়া ঘরটির মালিক মোঃ ইব্রাহীম জানান, পেশাগত কাজে বাহিরে থাকায় ঘটনার সময় তার স্ত্রী-সন্তানরা ঘরে ছিলনা। কাজ থেকে ফিরে এসে দেখেন বারান্দাসহ ঘরের অনেকটা অংশ ভেঙ্গে পড়েছে। ভুক্তভোগী আরেক বাসিন্দা মাহফুজা বলেন, ওইদিন বিকেলের বৃষ্টিতে বালু সরে গিয়ে আমার ঘরেরও অনেকটা অংশ ভেঙ্গে পড়েছে। প্রকল্পের অনেক বাসিন্দা অভিযোগ করে বলেছেন, অন্য ঘরগুলিও নানা হুমকির মুখে রয়েছে। ৫ মাস আগে তারা ঘরগুলো পেয়েছেন।

[৪] এরইমধ্যে অনেক ঘরেরই দেয়াল ও মেঝে থেকে পলেস্তারা খসে পড়ছে, সামান্য বৃষ্টিতেই টিনের চালার বিভিন্ন স্থান দিয়ে পানি পড়ে বিছানাপত্র সব ভিজে যায়, ঘরের ভিতরে পানি জমে, জানালা-দরজা সব নড়বড়ে। তাই ঝড়-বাদলের এমনদিনে নানা শঙ্কা নিয়ে তারা সেখানে বসবাস করছেন। তবে এব্যাপারে সংশ্লিষ্ট প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ আলাউদ্দিন মোবাইল ফোনে সাংবাদিকদেরকে সংবাদ প্রকাশ না করার অনুরোধ জানিয়ে বলেছেন, অতিবৃষ্টির কারণে সেখানে দু’টি ঘরে সমস্যা হয়েছে।

[৫] আর কোন সমস্যা নেই, টুকিটাকি কোন সমস্যা থাকলে এক সপ্তাহ সময় দেন, সব ঠিক করে দেব। সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রাশেদুর রহমান বলেছেন, ঘর দু’টি ভেঙ্গে পড়ার বিষয়টি একটি দুর্ঘটনা মাত্র। তাছাড়া পাশের একটি আশ্রয়ণের বৃষ্টির পানি ওই প্রকল্পের উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়ে যায়।এ কারণেই ঘর দু’টি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

[৬] ঘটনার পরপরই প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করেছি এবং সেগুলো দ্রুত মেরামতেরও ব্যবস্থা করেছি।করোনায় আক্রান্ত জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানার সঙ্গেঁ যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তিনি একটি জুম মিটিংয়ে আছেন বলে জানাগেছে।

  • সর্বশেষ