প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দুই শতাধিক মসজিদে কোরআনের আয়াতের ক্যালিওগ্রাফি করেছেন অনীল কুমার

ওয়ালিউল্লাহ সিরাজ: [২] দেশটির হায়দরাবাদের বাসিন্দা অনীল কুমান চৌহান। বর্তমান বয়স ৫০। তিনি নিজে নিজেই ক্যালিওগ্রাফি শিখে গত ৩০ বছর থেকে ক্যালিগ্রাফির কাজ করছেন। আল জাজিরা

[৩] অনীল বলেন, আমি একজন গরিব হিন্দু পরিবারের ছেলে। পরিবারকে সাহায্য করতে ১০ম শ্রেণির পর আর পড়ালেখা করতে পারিনি। আমি ভালো আঁকতে পারতাম। তাই আমি সাইনবোর্ড পেইন্টার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়ার পরিকল্পনা করি। বর্তমানে আমি ফ্রিলান্সিং করে প্রতি মাসে ৩৫০ ডলারের বেশি আয় করি।

[৪] তিনি আরো বলেন, গত ৩০ বছরে আমি ৩০টি মন্দিরে হিন্দু দেব-দেবীর ছবিও এঁকেছি। অনেক দরগা এবং মঠ-আশ্রমেও ছবি এঁকেছি। ১০০টির বেশি মসজিদে আমি টাকার বিনিময়ে ক্যালিওগ্রাফি করেছি। তবে আরও ১০০টি মসজিদে কাজ করেছি কোনো বিনিময় ছাড়াই। একটা জায়গায় কাজ করতে গেলে আত্মিক টান অনুভব করি। তাই টাকা-পয়সার প্রতি খুব একটা মন টানে না।

[৫] অনীল কুমার বলেন, ৩০ বছর আগেও হায়দরাবাদে উর্দুর ব্যাপক প্রচলন ছিল। কারণ সেখানকার অধিকাংশ মানুষ এবং দোকানদার মুসলিম ছিল। তাই উর্দু শেখা ছাড়া কোনও বিকল্প ছিল না।

[৬] তিনি বলেন, আমি খুবই আনন্দিত। ভারতের মুসলিমরা আমার মেধাকে চিনতে পেরেছে। শুধু তাই নয় বিভিন্ন শহরের এলিটরা আমার জন্য তাদের দুয়ার খুলে দিয়েছেন।

[৭] অনীল কুমার হায়দরাবাদের জামিয়া নিজামিয়া ইসলামিক ভার্সিটি থেকে একটি ফতোয়াও নিয়েছেন। যাতে করে ভবিষ্যতে কোরআনের আয়াতের ক্যালিওগ্রাফি করতে কেউ বাঁধা দিতে না পারে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ অনীলের কাজের দক্ষতায় মুগ্ধ। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাদের প্রধান গ্যালারিতে অনীলের লেখা সূরা ইয়াসিনের আয়াতের ক্যালিওগ্রাফি টাঙ্গিয়ে রেখেছেন। এই ক্যালিওগ্রাফির দৈর্ঘ্য ছয় ফুট বাই চারফুট (১৮৩ সেমি ১২২ সেন্টিমিটার)। সম্পাদনা : রাশিদ

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত