শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৭ জুন, ২০২১, ০৮:২৭ রাত
আপডেট : ২৭ জুন, ২০২১, ০৮:২৭ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

[১] যুক্তরাষ্ট্রে আর উৎপাদিত ও বিক্রি হবে না জনসন এন্ড জনসনের ব্যাথানাশক ঔষধ

লিহান লিমা: [২] শনিবার নিউইয়র্কের অ্যাটর্নী জেনারেল জানান, ব্যাথানাশক ঔষধ ব্যবহারে আসক্তি তৈরিতে মদদ দেয়ার মামলায় মার্কিন ফার্মাসিউটিক্যাল জায়ান্ট জনসন এন্ড জনসন ২৩০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার পরিশোধ করতে রাজি হয়েছে। আল জাজিরা

[৩] এক বিবৃতিতে অ্যাটর্নী জেনারেল লেটিটিয়া জেমস বলেন, ‘নিউইয়র্কসহ যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যে ব্যাথানাশক ঔষধের ব্যবহার মহামারী রুপ ধারণ করেছে, লাখ লাখ মানুষ এখন এই ভয়ঙ্কর ও প্রাণঘাতী ব্যাথানাশক ঔষধে আসক্ত হয়ে পড়েছে।

[৪] জেমস আরো বলেন, জনসন এন্ড জনসন এই আসক্তি তৈরির পেছনে ছিলো, কিন্তু এখন তারা বলেছে তারা ব্যাথানাশক ঔষধ তৈরি ব্যবসা ছেড়ে দেবে। যুক্তরাষ্ট্রে জনসন এন্ড জনসনের তৈরি ব্যাথানাশক ঔষধ আর উৎপাদিত ও বিক্রি হবে না। সেই সঙ্গে নিউইয়র্ক রাজ্যে অপিঅড প্রতিরোধ, চিকিৎসা ও শিক্ষাখাতে এই ২৩০ মিলিয়ন ডলার ব্যয় করা হবে।’

[৫] এই চুক্তির ফলে ২০১৯ সালে জেমসের আনা মামলা থেকে দায় মুক্তি পাচ্ছে জনসন এন্ড জনসন। তবে কোম্পানিটি কোনো দায় বা ভুল স্বীকার করে নি।

[৬] এর আগে ২০১৯ সালে ওকালাহামা রাজ্যের করা এক মামলায় আফিমযুক্ত ব্যাথানাশক ঔষধ তৈরির দায়ে জনসন এন্ড জনসনকে ৫৭২ মিলিয়ন ডলার জরিমানা করা হয়।

[৭] মার্কিন রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ অধিদপ্তর (সিডিসি) বলেছে, গত ২০ বছরে প্রায় ৫ লাখ মৃত্যুর জন্য দায়ী এই ব্যাথানাশক ঔষধ।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়