প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুই মণ আম বিক্রি করে এক কেজি খাসির মাংস কেনাই দুরূহ!

নিউজ ডেস্ক: শিবগঞ্জে এক কেজি মাংস কিনতে বিক্রি করতে হচ্ছে প্রায় দুই মণ আম! সরেজমিনে মাংসের বাজার ঘুরে কসাই ও ক্রেতাদের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, গরুর এক কেজি মাংসের দাম ৬০০ টাকা, খাসির এক কেজি মাংসের দাম ৮০০ টাকা। অন্যদিকে উত্তরবঙ্গের বৃহত্তম কানসাট আমবাজারে বিক্রেতা ও ক্রেতারা জানিয়েছেন, ফজলি আমের দাম মাত্র ৪০০ টাকা মণ।

কানসাটের আমবিক্রেতা শেরপুর ভাণ্ডারের লাল্টু জানান, নিজ বাগানের এক ভ্যানে চার মণ ফজলি আম নিয়ে সকালে এসেছি। বেলা ৩টা পর্যন্ত আম বিক্রি করতে পারিনি। দাম চেয়েছি ৫৫০ টাকা মণ। ক্রেতা বলছে ৪০০ টাকা মণ।

তিনি আরও জানান, চার মণ আমের পাকা ওজন দিতে গিয়ে দিতে হচ্ছে পাঁচ মণ আট কেজি আম। অর্থাৎ, ৫২ কেজিতে মণ। তারপর আবার মহরিল (হিসাবকর্মী) নিচ্ছেন মণপ্রতি একটি, কয়েলি বাবদ নিচ্ছে মণপ্রতি একটি, আবার শ্রমিকেরা নিচ্ছে ভ্যানপ্রতি প্রায় দুই কেজি করে। সব মিলিয়ে চার মণ আমের পাকা ওজনে দিতে হচ্ছে পাঁচ মণ ১২ কেজি।

আমবিক্রেতা জেম আক্ষেপ করে বলেন, ‘হায় রে আম। যার দাম এতই কম যে বাজারে ফজলি আম দুই মণ বিক্রি করে বড়জোর এক কেজি খাসির মাংস কেনা যায়।’ শুধু জেম নন, জেলার হাজার হাজার আমচাষি ও ব্যবসায়ীদের একই অবস্থা। কানসাট বাজার এলাকার প্রায় ৭৫ বছরের জনৈক মুরব্বি বলেন, ‘আমার জীবনে আমের এত বেহাল দশা কোনো দিন দেখিনি।’

ইত্তেফাক

সর্বাধিক পঠিত