প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আনিস আলমগীর: ঠগের দুনিয়ায় দেখে শুনে বিনিয়োগের দায়িত্ব যার যার

আনিস আলমগীর: ইভ্যালি, ডেসটিনি, ইউনিপে-টু-ইউ, যুবক এ জাতীয় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে লেনদেন করে কেউ প্রতারিত হয়ে হাউকাউ করতে দেখলে আমি কষ্ট পাই না। ভাই, তোমাকে কেউ জোর করছিলো তাদের সঙ্গে লেনদেন করতে? ঠগের দুনিয়ায় দেখে শুনে বিনিয়োগের দায়িত্ব তোমার। আমারে সেদিন ইভ্যালির মাধ্যমে টেস্টি ট্রিট নামের একটি কোম্পানি থেকে এক ছোটো ভাই কেক পাঠাইছে। রাত একটু বেশি ছিলো। বৈরি আবহাওয়া, অন্য কোথাও পায়নি। এর চেয়ে জঘন্য কেক আমি জীবনে মুখে দেইনি। তাকে বলেছি ভবিষ্যতে পয়সাটা যাতে আর অপাত্রে না দেয়। দারাজ থেকে একটা মোবাইলের হেডফোন কিনেছিলাম, ফালতুর ফালতু। তাদের সাইটে তৃতীয় পক্ষের একটা দীর্ঘমেয়াদী সার্ভিস কিনেছি। ঠকতে ঠকতে শেষ পর্যন্ত নিজের সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে সেটা এখনো এই আছে, এই নেই অবস্থা। আমার ই-কেনাকাটার প্রবল ইচ্ছে হয়। কিন্তু ই-সাইটের বাটপারদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে প্রতিকার পাওয়ার টেনশন নিতে চাই না। দেখাই যাচ্ছে, এদের বাটপারি দেখার কেউ নেই রাষ্ট্রে। অপেক্ষা করছি মনের মতো একটি ই-দোকানের। কেউ পাইলে খবর দিয়েন। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত