প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পদত্যাগ করলেন যুক্তরাষ্ট্রে নিয়োযিত চীনা রাষ্ট্রদূত

সুমাইয়া ঐশী: [২]বর্তমানে প্রতিনিধি শূন্য চীন ও যুক্তরাষ্ট্র। [৩] দীর্ঘ আট বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রে চীনের প্রতিনিধিত্ব করে এসেছেন চুই তিয়ানকাই। বুধবার এ ঘোষণা দেন তিনি। দুই দেশের মধ্যে ক্রমবর্ধমান অসন্তোষের মধ্যেই দীর্ঘদিন পর দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ালেন তিনি। এদিকে, গত বছর মার্কিন নির্বাচনের আগে চীনে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত টেরি ব্রান্সটেডও সরে দাঁড়িয়েছিলেন। অর্থাৎ বর্তমানে দেশদুটিতে একে অপরের পক্ষে কোনো প্রতিনিধি নেই। সিএনএন

[৪] যদিও চীনের রাষ্ট্রদূত হিসেবে নতুন নাম এসেছে কিন গ্যাঙের। তবে তার দায়িত্ব নেওয়ার আগ পর্যন্ত দুই দেশে রাষ্ট্রদূতের আসন খালিই থাকছে। রয়টার্স, ইউএস নিউজ

[৫] পদত্যাগের আগে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত চীনা নাগরিকদের উদ্দেশ্যে চুই বলেন, আপনারা আপনাদের অধিকারের জন্য সর্বাত্মক লড়াই করে যান। আপনাদের কাঁধে এখন মহৎ ও বড় দায়িত্ব ও লক্ষ্য রয়েছে। আমি আশা করবো চীন-যুক্তরাষ্ট্রের বৈরি সম্পর্কের প্রভাবের বিরুদ্ধে আপনারা নিজেদের অবস্থান থেকে দৃঢ় ও ইতিবাচকভাবে লড়াই করবেন। এসময় দুই দেশের মধ্যকার সম্পর্ক যে এখন তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে তা নিয়েও কথা বলেন চুই। দ্য গার্ডিয়ান

[৬] যুক্তরাষ্ট্রে চীনা রাষ্ট্রদূতের হঠাৎ এ পদত্যাগ নিয়ে ওয়াশিংটনের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালনের কারণে চুই ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলেন। তাই কয়েক বছরের জন্য অবসর চান তিনি।

[৭] সর্বকালের খারাপ ও আশঙ্কাজনক পরিস্থিতিতে এসে দাঁড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের পারস্পারিক সম্পর্ক। প্রযুক্তি ও অর্থনৈতিক দিকসহ যুক্তরাষ্ট্রকে রীতিমতো টেক্কা দিচ্ছে চীন। ফলে বিশ্ব নেতৃত্ব নিয়ে বর্তমানে চলছে সেয়ানে সেয়ানে লড়াই। আর এরই মধ্যে দুপক্ষের প্রতিনিধি শূন্য হওয়াকে বড় কোনো ঝড়ের আভাস বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

সর্বাধিক পঠিত