প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভূমিধ্বস বিজয়ে ইরানের ১৩তম প্রেসিডেন্ট হলেন ইব্রাহিম রায়িসি

রাশিদুল ইসলাম : [২] ইরানের বিচার বিভাগের সাবেক প্রধান আয়াতুল্লাহ সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হবার পর তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট রুহানি ও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের অন্যান্য প্রার্থীরা। ১৮ জুন অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনে পরস্পরের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন রায়িসি, রেজায়ি, হেম্মাতি ও কাজিজাদেহ হাশেমি। প্রেসটিভি

[৩] ইব্রাহিম রায়িসি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও নির্বাচনে তিনি রক্ষণশীল শিবিরের ব্যাপক সমর্থন পান। নির্বাচনে তার স্লোগান ছিল, ‘জনপ্রিয় প্রশাসন, শক্তিশালী ইরান’। দুর্নীতি ও দারিদ্রের বিরুদ্ধে লড়াই, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও মূল্যস্ফীতি প্রতিরোধ ছিল তার নির্বাচনী অঙ্গীকার।

[৪] ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় নির্বাচনের প্রাথমিক ফলাফল ঘোষণা করে।

[৫] রায়িসির বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে। সিএনএন

[৬] দেশটির উপস্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জামাল ওরফ বলেন নির্বাচনে ২৮.৬ মিলিয়ন ভোটার ভোট দেয়ার পর প্রায় ৯০ শতাংশ ভোট গণনা করে দেখা যায় রাইসি ১৭.৮ মিলিয়ন ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোহসেন রেজায়ি পেয়েছেন ৩.৩ মিলিয়ন ভোট। আরেক প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী নাসের হেম্মাতি ২.৪ মিলিয়ন ও হাশেমি পেয়েছেন ১ মিলিয়ন ভোট।

[৭] ২০১৯ সালে রায়িসি ইরানের বিচার বিভাগের প্রধান নিযুক্ত হন। প্রখ্যাত এই আলেম ইরানের ইসলামি বিপ্লবের পর থেকে ইরানের বিচার বিভাগে আরও বেশ কয়েকটি পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত