প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আফসান চৌধুরী: করোনাকালে বৃদ্ধ বনাম তারুণ্য

আফসান চৌধুরী: যে সামাজিক প্রক্রিয়াটা চলছে সেটা সনাতনী জামানার ঘরানার। বিবৃতি, হুংকার, মিটিং মিছিল, দাবি পেশ, নির্বাচন ইত্যাদি। এর সবল ভবিষ্যৎ আছে বলে মনে হয় না। এই সেকেলে লড়াইয়ে সিংহভাগ তারুণ্যের কোনো আগ্রহ বা আস্থা নেই বা কম। এটা বৃদ্ধদের গড়া দুনিয়ার, পৈতৃকসূত্রে পাওয়া মালামাল। কিন্তু বৃদ্ধরা এখনো প্রভাবশালী তাই তাদের ধারণা এখনো বহাল আছে। কিন্তু গবেষণার ডাটা তা বলে না। সেটা বৃদ্ধরা বা তাদের অনুসারীরা জানতে/বুঝতে চায় না। পুরাতন দুনিয়ার এই সমাজ ও রাজনীতি তারুণ্য চায়ও না।

[২] গরিব-বড়োলোকের চেয়ে তারুণ্য- বৃদ্ধের ফারাক অনেক বেশি মনে হয় এই সমাজে। তারুণ্য আলাদা দুনিয়া বানাচ্ছে সেখানে এই সনাতনী রাষ্ট্রের নিয়ন্ত্রণের প্রতি আগ্রহ নেই/ কম। তাদের পরিসর তারা পুরানো ধারণা বাদ দিয়ে বানাতে চায়। [৩] করোনা বৃদ্ধদের ঘায়েল করেছে, তারুণ্যকে অনেক মুক্ত করেছে। বৃদ্ধরা মরার ভয়ে ঘরে ঢুকেছে, বা বাইরে সক্রিয় কম। কিন্তু তারুণ্য চলছেই, তাদের সক্রিয়তা অনেক বেশি। এটা করোনার অবদান। ভাইরাসের আঘাতে একটা দুনিয়া ভেঙে গেছে, আর নতুন দালান ওঠছে। দেখা যাক শেষ পর্যন্ত কী হয়।

লেখক, গবেষক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত