প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] আইনি সুরক্ষার ঢালে টাকা পাচার করছে দুর্নীতিবাজরা

মিনহাজুল আবেদীন: [২] বৃহস্পতিবার ডিবিসি টিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ৩৬ দেশে পাচার হচ্ছে টাকা। সবচেয়ে বেশি যাচ্ছে ১০ দেশে। ৮০ শতাংশ অর্থ পাচার হচ্ছে আমদানি-রপ্তানির আড়ালে। বিদেশি বাণিজ্যের মাধ্যমে টাকা পাচার ঠেকাতে কাস্টমসের ভ্যালুয়েশন ইউনিটকে শক্তিশালী করার পরামর্শ দিয়েছেন অর্থনীতিবিদরা।

[৩] কানাডার সরকারি সংস্থা ফিনট্রাকের তথ্যমতে, দেশটিতে গত এক বছরে ১ হাজার ৫৮২টি টাকা পাচার ঘটনা ঘটেছে। মূলত করছাড়, প্রশ্নবিহীন বিনিয়োগের অবাধ সুযোগের প্রলোভন দিয়ে উন্নয়নশীল দেশের টাকা নিজেদের অর্থনীতিতে নিতে আগ্রহী উন্নত দেশগুলো। অর্থ পাচারের খোঁজ খবর রাখে, এমন সব বৈশ্বিক সংস্থার তথ্য উপাত্ত বলছে, বাংলাদেশ থেকে টাকা পাচার হয় বিশ্বের ৩৬টি দেশে। তবে সবচেয়ে বেশি হৃষ্টপুষ্ট হয়েছে ১০ দেশের অর্থনীতি।

[৪] এসব দেশের মধ্যে রয়েছে সিঙ্গাপুর, কানাডা, মালয়েশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, সুইজারল্যান্ড, সংযুক্ত আরব আমিরাত, অস্ট্রেলিয়া, হংকং, থাইল্যান্ড।

[৫] বৃহস্পতিবার ডিবিসি টিভির এক প্রতিবেদনে কোম্পানি আইন বিশ্লেষক ব্যারিস্টার এম এ মাসুম বলেন, আমাদের দেশ থেকে উন্নত দেশগুলোতে টাকা পাচারের ঘটনায় যেভাবে উৎস সন্ধান করা উচিত তারা সেভাবে করে না। পাচারের টাকা তারা বিভিন্নভাবে তাদের দেশের অর্থনীতিতে কাজে লাগাতে পারে সেজন্য উন্নত দেশগুলো এ বাপারে কোনও উদ্যোগ নেয় না।

[৬] পিআরআই এর নির্বাহী পরিচালক ড. আহসান এইচ মনসুর বলেন, কোনও পণ্যের দাম নির্ধারণ করে দেয়া সম্ভব না। আবার ব্যাংকের মাধ্যমেও মূল্য নির্ধারণ করা সম্ভব না। তাই যা করার কাস্টমসকেই করতে হবে। পরিমাণে অল্প হলেও, টাকা পাচারের নতুন মাধ্যম হয়ে উঠছে বিভিন্ন অ্যাপস। স¤প্রতি বিগো লাইভ ও লাইকির মাধ্যমে প্রতিমাসে শতকোটি টাকা পাচারের ঘটনাও সামনে এসেছে। সম্পাদনা:

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত