প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নাজনীন মুন্নী: এই দেশটা টাকা আর কিছু বিকৃত মানুষের পায়ের কাছে পড়ে আছে

নাজনীন মুন্নী: আপনাদের একটা কথা বলি শুনেন। পরীমনি কী, কেমন করে তার চার্টার্ড প্লেনের টাকা যোগাড় হয় বা কেমন করে সে দুবাইয়ে বিলাসী অবসর কাটায়, এইগুলা আপনার অপ্রাপ্তি আর হিংসুক মনের প্রশ্ন। একজন প্রথম সারির নায়িকা রাত ১২টা কেন, যেকোনো সময় পারিবারিক বন্ধুর সঙ্গে যে কোথাও যেতে পারে। এইটা তার স্বাধীনতা। এই দেশে রাত ৮টা বাজলে দোকানের ঝাপি বন্ধ করে ঘরে বসে যেতে হবে এই নিয়ম আপনার জন্য প্রযোজ্য। কারণ আপনি চান। কিন্তু কেউ যদি চায় সে ঘুরবে, আনন্দ করবে সেটা তারও স্বাধীনতা।

ঘরে বন্দি অবস্থায় আপনি যদি নিজেকে নিরাপদ ভাবেন আপনার মতো বোকা নেই। আপনি বাইরে যখন কোনো শঙ্কা ছাড়া চলতে পারবেন তখন আপনি নিরাপদ এইটুকু বুঝ নেই আপনার? আমি নায়িকা বা আমি মিডিয়ায় কাজ করি বলেই নোংরা মনের নোংরা মানুষ আমার গায়ে হাত দিতে পারবে বা টাকার জোরে আমাকে কাবু করবে এমন ভাবা অসভ্যতা। এমন মানসিকতা যখন আপনার থাকবে আপনি বুঝবেন আপনি লম্পট, দুশ্চরিত্র একজন।

মনে রাখেন একজন প্রস্টিটিউটেরও না বলার অধিকার আছে। সেখানে পরী একজন প্রতিষ্ঠিত মানুষ। না মানে না ব্যস এই ঘটনার তদন্ত হতে হবে। পরীমনির ভুল হলে তার শাস্তি হবে। কিন্তু আর চেপে যাইয়েন না। এই দেশটা টাকা আর কিছু বিকৃত মানুষের পায়ের কাছে পড়ে আছে। মনে অবশ্যই রাখেন আপনারও একটা মেয়ে বা বোন আছে। এইদেশের নায়িকার যখন এমন হাহাকার করে কেঁদে আকুল হয়ে বিচার চাইতে হয় আপনি কই আছেন আর আমি কই। ফেসবুক থেকে

 

সর্বাধিক পঠিত