প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কে এই নাসির উদ্দিন মাহমুদ?

নিউজ ডেস্ক : সদা হাস্যোজ্জ্বল পরীমনি আজ সন্ধ্যা ৭টা ৫৩ মিনিটে ফেসবুক পোস্টে ‘আমাকে রেপ এবং হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে’ বলে অভিযোগ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে বিচার দাবি করেন। এর কিছু সময় পর একটি সংবাদ সম্মেলনে কান্না কান্না কণ্ঠে সাংবাদিকদের বলেন, নাসির উদ্দিন মাহমুদ আমাকে ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টা করেছেন। ওই নাসির উদ্দিন নিজেকে বেনজির আহমদের ভাই অথবা বন্ধু বলে পরিচয় দিয়েছেন। বেনজির আহমেদের কাছের মানুষ। আমার গায়ে যখন হাত তোলা হয় তখন বারবার বলেছিল- আমাকে তিন টুকরো করে ভাসিয়ে দেবে।

পরীমণি আরও বলেন, বুধবার রাতে উত্তরার বোট ক্লাবে ঘটনাটি ঘটে। নাসির উদ্দিন নামে একজন তাকে নেশাজাতীয় কিছু খাইয়ে এ ঘটনা ঘটাতে চেয়েছিলেন।

পরীমনি। ছবি: ইনস্টাগ্রাম

কী ঘটেছিল সেটা জানতে চাইলে তিনি বলেন, বুধবার রাত পৌনে ১১টার দিকে তার এক বন্ধু বাসায় আসেন। বাসা থেকে তাকে উত্তরার বোট ক্লাবে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় তার সঙ্গে সবসময় থাকেন এবং নাচ করেন… ছেলেটি ছিলেন। বোট ক্লাবে যাওয়ার পর সেখানে জিমি ও পাঁচজনের একটি গ্রুপ ছিল। তাদের মুরব্বি ছিলেন নাসির উদ্দিন। তিনি বোর্ড ক্লাবের চেয়ারম্যান হিসেবে পরিচয় দেন।পরীমনি

নাসির উদ্দিনসহ উপস্থিত সাত/আটজন তাকে বিভিন্নভাবে হেনস্তা করেন। জিমি এ সময় সাইডে চলে যায়। ওই পাঁচ/সাতজন তাকে আটকে ফেলেন। তাকে জোর করে নেশাজাতীয় কিছু খাইয়ে অজ্ঞান করে ফেলা হয়। তার সঙ্গে থাকা ছেলেটিকে (একসঙ্গে নাচ করেন) মারধর করা হয়। অশ্লীল নানা কথাবার্তা বলা হয়। মেরে ফেলারও হুমকি দেওয়া হয়।

নাসির উদ্দিন তার সঙ্গে জোরপূর্বক শারীরিক সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করেন বলেও অভিযোগ করেন পরীমণি।পরীমনি। ছবি: ফেসবুক থেকে

সুইসাইড নিয়ে পরীমনি জোর গলায় বলেন, ‘আমি সুইসাইড করার মতো মেয়ে নই। আমি যদি মারা যাই, ধরে নেবেন আমাকে মেরে ফেলা হয়েছে। আমি সুইসাইড করতে পারিনা। আমি আমার বিচার নিয়েই মরব। আমার সাথে অন্যায় করা হয়েছে আমি এর বিচার চাই। আর আমি যদি মরে যাই আপনার বিচার করবেন।’

সর্বাধিক পঠিত