প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওপর করারোপ আইনবিরোধী, উচ্চশিক্ষার প্রসারে প্রণোদনা দাবি

শরীফ শাওন : [২] বাংলাদেশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতি জানান, ১৮৮২ সালের ট্রাস্ট আইন অনুযায়ী ট্রাস্টের অধীন পরিচালিত হওয়ায় অলাভজনক প্রতিষ্ঠান করযোগ্য নয়। ২০১০ সালের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন অনুযায়ী ট্রাস্টের অধীনে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো অলাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচালিত।

[৩] শুক্রবার সমিতির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রস্তাবিত ১৫ শতাংশ আয়কর বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্টদের ব্যাপক উদ্বেগ-উৎকন্ঠার সৃষ্টি করেছে।

[৪] বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ২০১৫ সালে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপর ভ্যাট আরোপ করা হলে প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত উদ্যোগে তা রহিত করা হয়। ১৯৯৪ সালের কোম্পানি আইনের আওতায় লাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচালিত মেডিক্যাল কলেজ ও ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের সঙ্গে ট্রাস্ট আইনে অলাভজনক হিসেবে পরিচালিত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওপর একই আওতায় সমভাবে আয়কর আরোপের প্রস্তাবনা আইনের পরিপন্থী। এটি কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।

[৫] করারোপ হলে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো আর্থিক সঙ্কটে পড়বে এবং শিক্ষায় ব্যয় বৃদ্ধির কারণে শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষা বাধাগ্রস্ত হবে। শিক্ষিত জাতি গঠনের মাধ্যমে উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রীর রূপকল্প ২০৪১ অর্জনের লক্ষ্য ব্যাহত হবে।

[৬] বিশ্ববিদ্যালয়ের দুরবস্থার বিষয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনা সঙ্কটে বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই করছে। শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা, ক্যাম্পাস ভাড়া প্রদান করা অনেক ক্ষেত্রেই অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর একমাত্র অর্থপ্রাপ্তির উৎস হিসেবে শিক্ষার্থীদের টিউশন ফিসও নিয়মিত পাওয়া যাচ্ছে না।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত