প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] অনলাইনে ভাইরাল যুক্তরাষ্ট্রের হাইস্কুল শিক্ষার্থীর গর্ভপাতের অধিকার দাবির ভিডিও

লিহান লিমা: [২] কমেন্সমেন্ট বক্তৃতায় গর্ভপাতের অধিকারের দাবি জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের লেক হাইল্যান্ড স্কুলের শিক্ষার্থী প্যাক্সটন স্মিথের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যে গর্ভপাত বিরোধী কঠোর আইনের তীব্র সমালোচনা করেছেন তিনি। এমএসএন

[৩] স্কুল কর্তৃপক্ষ কমেন্সমেন্টে দেয়ার জন্য তাকে যে বক্তৃব্য ঠিক করে দিয়েছিলো তা বাতিল করে তিনি গর্ভপাতের অধিকারের দাবি জানিয়ে একটি বক্তৃব্য দেন।

[৪] তিনি বলেন,‘আমার শরীর ও আমার অধিকার নিয়ে যখন আমাকে যুদ্ধ করতে হচ্ছে তখন আমি নিজের আত্মতৃপ্তি ও শান্তির জন্য এই মঞ্চটি ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকতে পারি না। এই লড়াই আপনার মায়ের জন্য, আপনার বোনটির জন্য ও আপনার মেয়ের জন্য। আমার চুপ থাকতে পারি না। আমার একটি স্বপ্ন, আশা ও লক্ষ্য রয়েছে। আজকের দিনে গ্র্যাজুয়েট হওয়া প্রতিটি মেয়ের মতো। আমরা আমাদের পুরো জীবন আমাদের ভবিষ্যত গড়তে সারা জীবন কাজ করছি, কিন্তু আমাদের সম্মতি ব্যতীতই সেই ভবিষ্যতের ওপর থেকে আমাদের নিয়ন্ত্রণ কেড়ে নেয়া হয়েছে। আমি আতঙ্কিত, যদি আমার গর্ভনিরোধক পিল কোনো কারণে কাজ না করে, আমি আতঙ্কিত যদি আমি ধর্ষণের শিকার হই, কারণ তখন আর আমার আশা, স্বপ্ন, আকাঙ্কা এবং ভবিষ্যতের জন্য আমার প্রচেষ্টার আর কোনো মূল্যই থাকবে না। আমি আশা করছি আপনি বুঝতে পারছেন এটি কতটা পীড়াদায়ক, আমি এও আশা করছি আপনি অনুধাবন করছেন যে এটি কতটা অমানবিক, কারণ আপনার নিজের শরীরের ওপর আপনার নিজের নিয়ন্ত্রণই কেড়ে নেয়া হচ্ছে।

[৫] প্যাক্সটনকে সমর্থন করে সাবেক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন লিখেছেন, ‘চুপ না থাকার জন্য তোমাকে ধন্যবাদ।’

[৬] গত সপ্তাহে টেক্সাসের গর্ভনরের নতুন করে গর্ভপাতরোধী কঠোর আইন ‘হার্টবিল বিল’ উত্থাপন করেন। এই আইনে ৬ সপ্তাহ কোনো গর্ভকালীন অবস্থা চিহ্নিত হলে তা গর্ভপাত করা যাবে না। কিন্তু যেহেতু বেশিরভাগ নারীই নিজের গর্ভকালীন অবস্থা এর পূর্বে বুঝতে পারেন না তাই এর তীব্র সমালোচনা করছেন অধিকার কর্মীরা। এটি আগামী সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হবে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত