প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কোভিড-১৯ এর উৎস বের করতে না পারলে কোভিড-২৬ বা কোভিড-৩২ হওয়া অসম্ভব নয়, বলছেন মার্কিন বিশেষজ্ঞ

মাহামুদুল পরশ: [২] সম্প্রতি টেক্সাস চিলড্রেন হসপিটাল সেন্টার ফর ভ্যাকসিন ডেভেলপমেন্টের বিশেষজ্ঞরা এই আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনাভাইরাস কীভাবে সংক্রমণ ঘটিয়েছে তা না জানতে পারা, বিশ্বকে ভবিষ্যতে আরও বড় কোনও সংক্রমণের দিকে ঠেলে দিতে পারে। নিউ ইয়র্ক টাইমস

[৩] করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি নিয়ে প্রথম থেকেই বেশ বিতর্ক রয়েছে। এনিয়ে শুরু থেকে চীনের দিকে ইঙ্গিত করা হলেও চীন সকল অভিযোগকে অস্বীকার করে আসছে। এনডিটিভি

[৪] করোনার টিকা প্রস্তুতকারী সংস্থা ফাইজারের বোর্ড সদস্য স্কট গটলিব একটি বিবৃতিতে করোনাভাইরাস চীনের ল্যাবে তৈরি হয়েছে বলে দাবি করেছেন। এই বিষয়ে বিভিন্ন যুক্তি প্রমাণও পেশ করেন তিনি। কিন্তু চীন বরাবরের মতোই এই অভিযোগকে অম্বীকার করেছে। তবে স্কটের দাবির বিরুদ্ধে যথেষ্ট তথ্য-প্রমাণ দেখাতে পরেনি দেশটি। বিজনেস স্ট্যানডার্ড

[৫] অন্যদিকে বন্য প্রাণী থেকেই যে এই ভাইরাসটি সংক্রমণ ছড়িয়েছে তা এখন পর্যন্ত প্রমাণ হয়নি। তবে বিভিন্ন সময় অভিযোগ অস্বীকার করলেও আলোচিত উহানের সেই ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজিতে তদন্তের জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকেও প্রবেশ করতে দেয়নি চীন। সম্পাদনা: সুমাইয়া ঐশী

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত