প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] রোহিঙ্গা গণহত্যার বিষয়ে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতকে সহযোগিতা করবে মিয়ানমারের ঐক্য সরকার

ইমরুল শাহেদ: [২] মিয়ানমারের জাতীয় ঐক্য সরকার বলেছে, দেশটির রোহিঙ্গা গণহত্যা নিয়ে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে যে মামলাটি চলমান রয়েছে, সেটিতে আদালতকে সহযোগিতা করার জন্য প্রয়োজনীয় সকল পদক্ষেপ নিচ্ছে ঐক্য সরকার।

[৩] ২০১৭ সালে দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইন রাজ্যে মিয়ানমার সেনা বাহিনীর হত্যাযজ্ঞ, ধর্ষণ ও লুটপাটের মুখে প্রাণ বাঁচাতে সাত লাখ রোহিঙ্গা সীমান্ত অতিক্রম করে প্রতিবেশি বাংলাদেশে আশ্রয় গ্রহণ করে।

[৪] রোহিঙ্গাদের উপর গণহত্যা চালানোর অভিযোগ তুলে ২০১৯ সালের নভেম্বর মাসে গাম্বিয়া জাতিসংঘ গঠিত আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করে। কিন্তু ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে দেশটির কার্যত নেত্রী অং সান সুচি সেনা বাহিনীর পক্ষ সমর্থন করে আদালতে কথা বলেন।

[৫] গাম্বিয়ার আইনজীবীরা আদালতে রাখাইনে মুসলিম সংখ্যালঘুদের উপর মিয়ানমার সেনা বাহিনীর নির্যাতন, গণধর্ষণ, তাদের বাড়িঘর পুড়িয়ে দেওয়া, শত শত রোহিঙ্গা শিশুকে হত্যার করার বিবরণ আদালতে তুলে ধরেন। যেহেতু এই মামলাটি শেষ হতে সময় লেগে যাবে, সেহেতু আফ্রিকান দেশগুলো আর যাতে সহিংসতার ঘটানা ঘটতে না পারে সেজন্য একটা ‘প্রভিশনাল মেজার্স’ নেওয়ার দাবি জানান।

[৬] রোববার এক বিবৃতিতে জাতীয় ঐক্য সরকার বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। সম্পাদনা: আসিফুজ্জামান পৃথিল

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত