প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]ইসরায়েলের নিরাপত্তার জন্য হুমকি জোট সরকার, সতর্ক করলেন নেতানিয়াহু

সুমাইয়া ঐশী : [২]ডানপন্থী রাজনীতিকদের এই জোটে সামিল না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী।

[৩]চুক্তি অনুযায়ী প্রথমেই নেতানিয়ার স্থান দখল করবেন উগ্র-জাতীয়তাবাদী নেতা নাফতালি বেনেট।

[৪] দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকার পর এবার পদ হারানোর দ্বারপ্রান্তে ১২ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনজামিন নেতানিয়াহু। তার বিপরীতে একটি জোট সরকার গঠন করা হচ্ছে, আর এই সরকারকে ঠেকাতে এখন মরিয়া এই নেতা। বিবিসি

[৫] রোববার তিনি রাজনীতিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, বামপন্থী সরকার গঠন করবেন না। এটি ইসরায়েলের নিরাপত্তা ও ভবিষ্যতের জন্য অত্যন্ত বিপজ্জনক। তবে এনিয়ে বিস্তারিত আর কিছুই বলেননি তিনি। দ্য ব্লগার

[৬] ইসরায়েলের মধ্যপন্থী দল আতিদের নেতা ইয়ার লাপিদের সঙ্গে জোট সরকার গঠনের জন্য চুক্তিবদ্ধ হতে চলেছে দেশটির উগ্র-জাতীয়তাবাদী দলের নেতা নাফতালি বেনেট। এনিয়ে নিজেদের অবস্থানও স্পষ্ট করেছেন লাপিদ। চুক্তিটি সফল হলে এই জোট সরকারের কারণেই হতে পারে নেতানিয়াহুর শাসনকালের অবসান। এর মাধ্যমে ইসরায়েলের ডান, বাম ও কেন্দ্রীয় রাজনৈতিক দল এক হতে চলেছে। ডেইলি ইউএস টাইমস

[৭] এই জোট সরকার গঠনের জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করবেন বলে ঘোষণা দেন উগ্র-জাতীয়তাবাদ দলের নেতা বেনেট। তার এ ঘোষণার আগেই ইসরায়েলি গণমাধ্যমে নতুন প্রস্তাবিত জোট সরকারের চুক্তির কাঠামো প্রকাশ করা হয়। সেখানে বলা হয়, চুক্তি অনুযায়ী প্রথমে বেনজামিনের বদলে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেবেন বেনেট। পরে রোটেশন চুক্তি মোতাবেক এই ক্ষমতা দেওয়া হবে লাপদকে। যদিও এই চুক্তি এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করা হয়নি।

[৮] এর আগে গত মার্চের সাধারণ নির্বাচনে নির্ধারিত ভোট পাননি নেতানিয়াহু, তার বিরুদ্ধে আছে জালিয়াতির অভিযোগ। এই নির্বাচন ছিলো দুবছরের মধ্যে চতুর্থ নিষ্পত্তিহীন নির্বাচন। এরপরও ফের নিজের জোটের সদস্যদের যথাযথ সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ হয়েছেন এই নেতা। সম্পাদনা : রাশিদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত