প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সামান্য ঝড়ে ঢাকার ওলি-গলিতে বিপজ্জনক ঝুঁকি, উচ্চ ভবনে সাবধানে রাখতে হবে কাঁচ, টিন, টবে গাছ, বিলবোর্ড

সুজিৎ নন্দী: [২] রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ঘূর্ণিঝড়, মাঝারি ও সামান্য ঝড়ে ভেঙে পড়ছে হাইরাইজ ভবনের জানালা ও ভবনের কাঁচ, বিভিন্ন মার্কেটের টিন, গাছ, বিলবোর্ড, নেতাদের ছবি দিয়ে প্লাকার্ড, ফুটপাতে চায়ের দোকানে টিনের ছাউনি মৃত্যুর কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

[৩] গত এক বছরে ঝড়ে রাজধানীসহ সারা দেশে প্রায় ৩০ জনের ও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। অর্ধশত গাছ গাড়ির ওপরে এগুলো ভেঙ্গে পড়েছে। এ সময় শেওড়াপাড়া, কাজীপাড়াসহ একাধিক স্থানে ৫জন মারা গেছে।

[৪] উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, এ রকম ঘটনায় আবাসিক ভবন মালিকদের দায়িত্ব নিতে হবে। পাশাপাশি বাণিজ্যিক ভবনে বিলবোর্ড বা বড় ধরনের সাইনবোর্ড লাগানো আছে সেগুলো ভবন মালিক বা কর্তৃপক্ষ নিয়মিত দেকভাল করতে হবে।

[৫] ইতোমধ্যে দুই সিটি করপোরেশন পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানান।

[৬] জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানের (নিটোর) পরিচালক আব্দুল গনি মোল্লা বলেন, এ ব্যাপারে জনসচেতনতা বাড়ানো প্রয়োজন। অনেকে ছাদের বাউন্ডারিতে ফুলের টব রাখেন। এটি বিপদজনক। এর পাশাপাশি জেলা শহরগুলোতেও এরকম ঘটনা ঘটে। এ রোগীরাও অর্থোপেডিক হাসপাতালে আসে।

[৭] অর্থোপেডিক হাসপাতালের একাধিক চিকিৎসক জানান, রাজধানীতে মাত্র ১০ মিনিট ৫৫ কিলোমিটার গতিবেগে ঝড় হলে শুধুমাত্র এখানেই নূন্যতম ২শ’ রোগী এখানে ভর্তি হয় অথবা চিকিৎসা নিতে আসে। অপরিকল্পিত নগরায়নের কারণে এ ঘটনা ঘটে। বিভিন্ন সূত্র থেকে এ তথ্য জানা যায়।

[৮] সোনারগাঁও মোড়, গুলিস্তানের জিরো পয়েন্ট, শাহবাগ, কাওরান বাজার, পান্থকুঞ্জ পার্ক, হেয়ার রোড, আবদুল গনি রোড, তাঁতীবাজার ও ধানমন্ডি এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ছোট বড় এলইডি বিলবোর্ড লাগানো হয়েছে। যা ঝড় ও বৃষ্টির জন্য মারাত্মক হুমকি।

[৯] ট্রাফিক বিভাগের উদ্ধতন কর্মকর্তা জানান, সন্ধার পরে কিছু এলইডি বিলবোর্ডের কারণে আলো-আধাঁরের কারণে যানবাহন চলাচলই কষ্টকর হচ্ছে। বাড়ছে সড়ক দুর্ঘটনার শঙ্কা। বিলবোর্ডের কারণে গাড়ি চালকরা হচ্ছেন দিকভ্রান্ত। নগর পরিকল্পনাবিদ, গাড়ি চালক ও সাধারণ মানুষের এসব অভিযোগ আমলেই নিচ্ছেন না।

[১০] করপোরেশনের বিজ্ঞাপন নীতিমালা-২০০৩-এর ৯ এর ৬ উপধারায় ‘আলোকিত ডিসপ্লের ক্ষেত্রে’ বলা হয়েছে, ঝড়, বৃষ্টি এবং ট্রাফিক সেফটির প্রতি হুমকি স্বরূপ এরূপ আলোকিত বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ। এছাড়া আলোকিত বা বৈদ্যুতিক বিজ্ঞাপন যার কারণে ড্রাইভার এবং পথচারীর দৃষ্টিকে ঝলকে দেয়।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত