প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ময়মনসিংহ রেঞ্জে আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষী দিবস পালিত

আল আমীন: [২] “স্থায়ী শান্তির পথ, শান্তি ও নিরাপত্তার জন্য তারুণ্যের শক্তি ব্যবহার” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ময়মনসিংহ রেঞ্জে আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষী দিবস-২০২১ পালিত হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে একটি বর্ণাঢ্য পিসকিপার্স র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইজি ব্যারিস্টার মোঃ হারুন অর রশিদ বিপিএম।

[৩] প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন প্রতিমন্ত্রী গৃহায়ন ও গনপূর্ত মন্ত্রাণালয় শরীফ আহমেদ এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু, বিভাগীয় কমিশনার মোঃ কামরুল হাসান এনডিসি, ময়মনসিংহ কমান্ডার ৭৭ পদাতিক ব্রিগেড ও স্টেশন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ নাজমুল হক। এছাড়াও স্বাগত বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত ডিআইজি ড. মোঃ আক্কাছ উদ্দিন ভূঁঞা।

[৪] প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন বাংলাদেশের মানুষ ঐতিহ্যগত ভাবেই শান্তি প্রিয়। তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী ও পুলিশ বিশ্ব শান্তি রক্ষায় আন্তর্জাতিক শান্তি মিশনে কাজ শুরু করে। বাংলাদেশের শান্তিরক্ষা বাহিনী জীবন উৎসর্গ করে এদেশের মুখ শুধু উজ্জলই করেনি, সফল করেছে সকল শান্তি প্রিয় রাষ্ট্রের সম্বিলিত প্রচেষ্টাকে।

[৫] রেঞ্জ ডিআইজি ব্যারিস্টার মোঃ হারুন অর রশিদ সভাপতি’র বক্তব্যে বলেন জাতিসংঘ বাংলাদেশ পুলিশের কাজে স্বীকৃতি দিয়েছে। বাংলাদেশ পুলিশ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে সফল ও সুনামের সহিত কাজ করছে তার কারন হল তাদের পেশাদারিত্ব, নিরপেক্ষতা ও সকল ধর্ম-বর্ণ ও নারী-পুরুষের প্রতি সংবেদনশীল ও শ্রদ্ধাশীল থেকে কাজ করা। যা শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ পুলিশকে রোল মডেল হিসেবে উপস্থাপন করেছে।

[৬] আলোচনা সভায় অন্যান্য বক্তাগন বাংলাদেশ পুলিশের বিভিন্ন সময়ে শান্তিরক্ষা মিশনে অংশগ্রহণ করে বিশ্বের বুকে বাংলাদেশের নাম উজ্জ্বল করে রেখেছে যা অবশ্যই প্রশংসনীয়। ভবিষ্যতে বাংলাদেশ পুলিশের শান্তিরক্ষা মিশনে নিজেদের নাম অক্ষুন্ন রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের প্রতি জোর তাগিদ দেন।

[৭] উক্ত সভায় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসক এনামুল হক, জেলা পুলিশ সুপার মোহাঃ আহমার উজ্জামান পিপিএম-সেবা, রেঞ্জ পুলিশ সুপার সৈয়দ হারুন অর রশীদ, পুলিশ সুপার (ক্রাইম ম্যানেজমেন্ট) মোঃ ফারুক হোসেন, নেত্রকোণা পুলিশ সুপার মোঃ আকবর আলী মুন্সী, জামালপুর জেলা পুলিশ সুপার নাছির উদ্দিন আহমেদ, সেনাবাহিনী, বিজিবি ও র‌্যাবের বিভিন্ন্ ইউনিটে কর্মরত পিসকিপার্স সদস্যগন উপস্থিত ছিলেন। সম্পাদনা: সাদেক আলী

সর্বাধিক পঠিত