প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] টিকটকে তরুণীদের টার্গেট করে চাকরির প্রলোভনে বিদেশে পাচার: পুলিশ

মাসুদ আলম: [ ২] শনিবার বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে তেজগাঁও বিভাগের ডিসি মো. শহিদুল্লাহ বলেন, ভারতে তরুণীকে যৌন নির্যাতন ঘটনায় গ্রেপ্তার ৫ বাংলাদেশির ছিল না পাসপোর্ট-ভিসা। অবৈধভাবে সেখানে গিয়েছিল। চক্রটি টিকটকের মাধ্যমে স্কুল-কলেজের বখে যাওয়া মেয়েদের টার্গেট করতো। পরে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে পাচার করতো এবং পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করতো। গ্রেপ্তারকৃতরা আন্তর্জাতিক মানব পাচারকারী চক্রের সদস্য। যৌন নির্যাতনের ঘটনায় ভারত এবং বাংলাদেশে পৃথকভাবে মামলা হয়েছে।

[৩] তিনি আরও বলেন, টিকটকের মাধ্যমে আয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একটি ফেসবুক গ্রুপে যুক্ত হয়। এই চক্র বখে যাওয়া শিক্ষার্থী ও গৃহিনীদের অনেককে পাচার করেছে। অপরাধীরা যেহেতু বাংলাদেশি, তাই দুই দেশের মধ্যে আন্তঃসমন্বয়ের মাধ্যমে তাদের দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে। পুলিশ সন্ধান পেয়েছে, টিকটক ভিডিওর জন্য তাদের একত্রিত করতো। এক পর্যায়ে পাচারের কাজ করা হয়। এ চক্রের মূল আস্তানা ব্যাঙ্গালুরুর আনন্দপুর এলাকায়। পাচারের উদ্দেশ্য হচ্ছে পতিতাবৃত্তি।

[৫] ডিসি বলেন, চক্রটির বিভিন্ন হোটেলের সঙ্গে চুক্তি রয়েছে। বিভিন্ন হোটেলে তারা মেয়েদের সরবরাহ করে এবং আর্থিক সুবিধা পায়। চক্রের সদস্যরা তরুণীদের নেশাজাতীয় দ্রব্যাদি খাইয়ে মোবাইলফোনে ভিডিও করে, পতিতাবৃত্তি করাতে বাধ্য করতো । ভারত ও দুবাইসহ মধ্যপ্রাচ্যে এ চক্রের নেটওয়ার্ক রয়েছে।

[৬] তিনি আরও বলেন, টিকটকের মাধ্যমে পরিচিত হওয়া তরুণ-তরুণীদের নিয়ে মানবপাচারকারী চক্রের একটি গ্রুপ পরিচালনার তথ্য পাওয়া গেছে। যে গ্রুপের অ্যাডমিন এবং পৃষ্ঠপোষক ওই চক্র। একটি গ্রুপের অ্যাডমিনের তত্ত্বাবধানে গত বছরের শেষের দিকে ঢাকার পাশের একটি জেলায় পুলপার্টির আয়োজন করা হয়। ওই পার্টিতে প্রায় ৭শ-৮শ জন তরুণ-তরুণী অংশ নেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত