প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বরিশালে বাসে বেশি যাত্রী বহনে প্রতিবাদ করায় জানালা দিয়ে শিশুকে নিক্ষেপ

প্রশান্ত কুন্ডু: [২] নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে বাসের প্রতি আসনেই যাত্রী, লোক তোলা হয় দাঁড়িয়েও। তবে ভাড়া নেয়া হচ্ছে বর্ধিত হারেই। আর এই অনিয়মের প্রতিবাদ করায় অমানবিকতা দেখল একটি পরিবার।

[৩] সঙ্গে থাকা সাত বছরের মেয়েশিশুকে ছুড়ে ফেলা হলো জানলা দিয়ে। পরিবারটির বাকি তিন সদস্যকেও করা হয় মারধোর। শিশুটি ব্যথা পেলেও আঘাত গুরুতর ছিল না।

[৪] নগরীর রূপাতলী বাসস্ট্যান্ডে সকাল সাড়ে আটটার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

[৫] মারধরের শিকার চারজন হলেন মঠবাড়িয়া উপজেলার টিকিকাটা গ্রামের শামীম সিকদার, তার মা হাসনুর বেগম, ভাগিনার স্ত্রী কারিমা ও কারিমার সাত বছরের মেয়ে মুনিয়া।

[৬] ভুক্তভোগী শামীম সিকদার বলেন, ‘২৬ নং ওয়ার্ড কালিজিরায় বাসা আমার। মেইন বাড়ি মঠবাড়িয়ায়। আজ‌কে মঠবাড়িয়া যাই‌তে‌ছিলাম। এম‌নে সময়ে বরিশাল থেকে মঠবাড়িয়ায় ভাড়া দেড়শ টাকা কইরা। কিন্তু করোনায় স্বাস্থ্যবিধি মাইনা বাস চলাচল করায় ২৪০ টাকা কইরা ভাড়া দেই। মোরা চারজনেই ২৪০ টাকা কইরা টিকেট নিয়া সিটে বই‌ছিলাম। নিয়ম হই‌ছে, এক সিট খালি রাহা। কিন্তু ওই বাসটার সুপারভাইজার এক সিট তো খালি রাহেই‌ না বরং যাত্রী তোল‌ছে দাঁড়া কইরা নেয়ার জন্য।

[৭] ‘আমি এর প্রতিবাদ করলে বাসের সুপারভাইজার, হেলপারসহ বাসস্ট্যান্ডের ১৫/২০ জন শ্রমিক মিল্লা বাসের সিটেই আমারে মারধর করে। আমারে বাঁচাইতে গেলে শ্রমিকরা আমার মা, ভাগ্নে বৌ কারিমাকে মারধর করে। শুধু আমাগো মারধর করছে সেটাই নয়, আমার ভাগ্নের সাত বছরের মাইয়া মুনিয়ারে জানালা দিয়া নিচে ফালাইয়া দেছে।’

[৮] প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঝালকাঠি বাস মালিক সমিতির মাহিম পরিবহনের (গাড়ি নং ঢাকা মেট্রো ব-১৪৪৯৯৮) সুপারভাইজার মুন্নার নেতৃত্বে ব্যাপক মারধর করা হয়।

[৯] যাত্রীদের মারধরে শুধু ঝালকাঠি বাস মালিক সমিতির শ্রমিকরাই নয় রূপাতলী বাস মালিক সমিতির শ্রমিকরাও অংশ নেয়। সপরিবারে মারধরের পর তাদেরকে বাস থেকে নামিয়ে দিয়ে ঠাসাঠাসি করে যাত্রী নিয়েই মঠবাড়িয়ার উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

[১০] বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পুলিশ সদস্যরা দায়িত্ব পালন করলেও তারা ঘটনাটি দেখেনি বলে দাবি করেছে। এসময় মিজান বলে পরিচয় দেয়া এক কনস্টেবল বলেন, ‘আহত যাত্রীদের অভিযোগ শুইনা আমরা স্পটে গেছিলাম। কিন্তু বাস বা বাসের কাউকেই আমরা পাই নাই।’

[১১] কোতয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম বলেন, ‘খবর শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। কিন্তু কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি, বাসটিকেও পাওয়া যায়নি।’ সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত