প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

লকডাউনের মধ্যে হওয়া সব বিয়ে অবৈধ ঘোষণা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনা মহামারিতে বিপর্যস্ত ভারত। দেশটির মধ্যে আবার দিল্লি, মধ্যপ্রদেশ, কর্নাটকসহ বেশ কয়েকটি রাজ্যের অবস্থা বেশি খারাপ। বেশ কিছু রাজ্যে জারি করা হয়েছিল লকডাউন। অবশ্য লকডাউন অমান্যের ঘটনাও ঘটছে অহরহ। তবে লকডাউন অমান্য করায় ভারতের মধ্যপ্রদেশের সরকার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা চমকপ্রদও বটে।

করোনা মহামারি প্রতিরোধে জারি করা লকডাউন ও বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে বিয়ে করায় ১৩০টি বিয়ে অবৈধ ঘোষণা করেছে মধ্যপ্রদেশ সরকার। বৃহস্পতিবার (২৭ মে) রাজ্য সরকার এই ঘোষণা দেয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগগুলো বলছে, করোনা মহামারির ভয়াবহ অবনতির পর পরিস্থিতি মোকাবিলায় রাজ্যজুড়ে লকডাউন ঘোষণা করে মধ্যপ্রদেশ সরকার। নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয় সকল ধর্মীয় ও সামাজিক অনুষ্ঠানে। কিন্তু অভিযোগ রয়েছে লকডাউন ও বিধিনিষেধ অগ্রাহ্য করে গোপনে অন্তত ১৩০টি বিয়ে হয়েছে রাজ্য জুড়ে। এই পরিস্থিতিতে মধ্যপ্রদেশ সরকার ওই বিয়েগুলো ‘অবৈধ’ ঘোষণার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

রাজ্য প্রশাসনের এক কর্মকর্তা বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘লকডাউন ঘোষণার সময় স্পষ্ট ভাবে জানানো হয়েছিল, মে মাসে কোনো বিয়ে হবে না। কিন্তু বেশ কিছু ক্ষেত্রে সেই নির্দেশ মেনে চলা হয়নি বলে জানা গেছে। এই পরিস্থিতিতে সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে- ওই বিয়েগুলো ‘অবৈধ’ ঘোষণা করা হবে।’

তিনি জানান, সরকারি নির্দেশ অমান্যের দায়ে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ ধারা অনুযায়ী ওই বিয়েগুলো ‘অবৈধ’ ঘোষণা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যেই বিভিন্ন জেলার প্রশাসকদের এ বিষয়ে বার্তা দেওয়া হয়েছে। জেলা ম্যারেজ রেজিস্ট্রাররা যেন মে মাসে বিয়ে করা দম্পতিদের বিয়ের সনদপত্র না দেন, সে বিষয়েও নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে।

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে বর্তমানে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ২৪ লাখ ২৬ হাজার ৬৬৮ জন। এছাড়া মহামারি শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ২ কোটি ৭৩ লাখ ৬৭ হাজার ৯৩৫ জন এবং এ রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে মোট ৩ লাখ ১৫ হাজার ২৬৩ জনের।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত