প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ৭ হাজার কেজি আম নিয়ে ঢাকায় ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন’

বাশার নূরু: [২] রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে সাত হাজার ২৬৮ কেজি আম নিয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে ঢাকার পথে রওয়ানা দিয়েছে ‘ম্যাংগো স্পেশাল’ ট্রেন। শুক্রবার ভোর রাতে ট্রেনটি ঢাকার কমলাপুর রেল ষ্টেশনে পৌঁছানোর কথা।
[৩] এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুরে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন’ উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

[৪] উত্তরের সীমান্তবর্তী জেলা চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে নামমাত্র ভাড়ায় প্রতিদিন এই ট্রেন আমসহ অন্যান্য ফল এবং কাঁচামাল ও সবজি ঢাকায় অানবে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রান্তেও এই ট্রেনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

[৫] চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে কৃষক ও ব্যবসায়ীদের আম নিয়ে এসে ট্রেনটি বিকেল ৫টা ২০ মিনিটে রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছায়। এরপর এখানে আরও বেশি পরিমাণ আম ওঠানো হয়।পরে ৫টা ৫০ মিনিটে ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশে রাজশাহী ছেড়ে অাসে।

[৬] এর মধ্যে ট্রেনটি রাজশাহী থেকেই নিয়েছে সর্বোচ্চ ৬ হাজার ৩৪৩ কেজি আম। এর মধ্যে রাজশাহী স্টেশন থেকে ২ হাজার ৪১৯ কেজি আম তোলা হয়। চারঘাটের সারদা স্টেশন থেকে তোলা হয় ১ হাজার ৩১১ কেজি। আর রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী স্টেশনে আম উঠেছে ২ হাজার ৬১৩ কেজি। ক’দিন পরই বাজারে প্রচুর আম উঠবে। যতদিন যাবে আম পরিবহনের এই পরিমাণ আরও বাড়বে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনের ব্যবস্থাপক আবদুল করিম।

[৭] দ্বিতীয় বারের মতো পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাঁচটি ওয়াগন (মালগাড়ি) চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন হয়ে ঢাকা রুটে চালু হলো একটি ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন’। রাজশাহী থেকে মাত্র ১ টাকা ১৭ পয়সায় এই আম রাজধানী ঢাকায় পাঠাতে পারবেন কৃষক ও ব্যবসায়ীরা। প্রতিটি ওয়াগনের ধারণক্ষমতা রয়েছে ৪৩ মেট্রিক টন। তবে আম বহন করা হবে ৩০ মেট্রিক টন। কাঁচা বা আধাপাকা আম যেন অতিরিক্ত গরম ও চাপে নষ্ট না হয়ে যায় সে কারণে ধারণক্ষমতার কিছু কম পণ্য বহন করা হচ্ছে।

[৮] ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেনটি প্রতিদিন চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে বিকেল ৪টায় ছেড়ে আসবে। রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছাবে ৫টা ২০ মিনিটে। পণ্য তোলার জন্য ট্রেনটি এখানে ৩০ মিনিট বিরতি দেবে। বিকেল ৫টা ৫০ মিনিট মিনিটে ট্রেনটি আবারও ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা শুরু করবে।

[৯] চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ছেড়ে এসে ট্রেনটি আমনুরা বাইপাস, কাঁকনহাট, রাজশাহী, সরদহ, আড়ানি ও আব্দুলপুর বাইপাস স্টেশনে থামবে। এসব স্থানে আমসহ পার্সেল পণ্য ট্রেনে তোলা হবে।

[১০] টাঙ্গাইল, মির্জাপুর, কালিয়াকৈর, জয়দেবপুর, টঙ্গী, ঢাকা বিমানবন্দর, ক্যান্টনমেন্ট, তেজগাঁও এবং কমলাপুর স্টেশনে থামবে ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন।

[১০] ফেরার পথে ট্রেনটি রাজধানীর ঢাকার তেজগাঁও, টঙ্গী, টাঙ্গাইল ও সিরাজগঞ্জ, চাটমোহর এবং রাজশাহী স্টেশনে থামবে। তবে যাত্রাপথে কোথাও সাধারণ যাত্রী এ ট্রেনে তোলা হবে না।

সর্বাধিক পঠিত