শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৭ মে, ২০২১, ০৪:০১ দুপুর
আপডেট : ২৭ মে, ২০২১, ০৪:০১ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

[১] মিয়ানমার জান্তা সরকারকে লভ্যাংশ প্রদান বন্ধ করেছে ফ্রান্স ও যুক্তরাষ্ট্রের জ্বালানি কোম্পানি টোটাল ও শেভরন

লিহান লিমা: [২] ফ্রান্সের তেল ও গ্যাস কোম্পানি টোটাল এবং যুক্তরাষ্ট্রের জ্বালানি কোম্পানি শেভরন মিয়ানমারের জান্তা সরকারকে প্রকল্প থেকে প্রাপ্য লভ্যাংশ পরিশোধ না করার ঘোষণা দিয়েছে। গার্ডিয়ান

[৩] এক বিবৃতিতে টোটাল বলেছে, আমরা মিয়ানমারে হওয়া সহিংসতা ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। আমরা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি আমরা ইউরোপিয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাষ্ট্রের কর্তৃপক্ষের নেয়া নিষেধাজ্ঞাসহ আন্তর্জাতিক ও জাতীয় কর্তৃপক্ষের প্রাসঙ্গিক সিদ্ধান্ত মেনে চলবো।

[৪] এই মাসে মোয়াত্তামা গ্যাস ট্রান্সপোর্টেশন কোম্পানির (এমজিটিসি) এক মিটিংয়ে টোটালের শেয়ারহোল্ডারদের যৌথ ভোটে জান্তা সরকারকে লভ্যাংশ পরিশোধ স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এমজিটিসি হলো আন্দামান সমুদ্রের ইয়াদানা গ্যাসক্ষেত্র থেকে মিয়ানমার ও থাইল্যান্ডে গ্যাস সরবরাহের একটি যৌথ উদ্যোগ। এমজিটিসিতে টোটালের শেয়ার শতকরা ৩১.২৪ ভাগ। শেভরনের আছে শতকরা ২৮ভাগ শেয়ার। বাকি শেয়ারের মালিক থাইল্যান্ডের পিটিটিইপি এবং মিয়ানমারের ওয়েল অ্যান্ড গ্যাস এন্টারপ্রাইজ।

[৫] গণতন্ত্রপন্থী অধিকার গোষ্ঠীগুলো টোটাল ও শেভরনের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালেও মিয়ানমারে তেল ও গ্যাস সরবরাহ বন্ধ সহ জান্তা সরকাকে সব ধরণের অর্থ প্রদান বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে। অধিকার গোষ্ঠি জাস্টিস ফর মিয়ানমার বলছে,‘জান্তা সরকার এই কোম্পানিগুলোর তেল ও গ্যাস প্রকল্প থেকে বার্ষিক ১.৫ বিলিয়ন ডলার আয় করে, লভ্যাংশের স্থগিতাদেশ বিপুল পরিমাণ এই অর্থের একটি ক্ষুদ্র অংশ মাত্র।’ দুর্নীতি বিরোধী গ্রুপ ‘পাবলিশ হোয়াট ইউ পে অস্ট্রেলিয়া’ বলেছে, টোটাল ও শেভরনের জান্তা সরকারকে লভ্যাংশ প্রদান বন্ধ করার সিদ্ধান্ত ইতিবাচক। তবে জান্তা সরকারকে প্রধান করা বাকি ৯০শতাংশ অর্থের সরবরাহও বন্ধ করতে হবে।’

[৬] এক বিবৃতিতে শেভরন বলেছে, তারা মিয়ানমারে তেল ও গ্যাস সরবরাহ বন্ধসহ জান্তা সরকারকে সব ধরণের অর্থ প্রধান বন্ধের আহ্বান সম্পর্কে অবগত। তবে যে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়ার পূর্বে খতিয়ে দেখতে হবে তা মিয়ানমারের সাধারণ মানুষের কোনো ক্ষতি করছে কি না।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়