প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ঈশ্বরের আদেশে ২৬তম বারে এভারেস্ট শীর্ষ না ছুঁয়েই ফিরলেন রিতা শেরপা

রাশিদুল ইসলাম : [২] বিশ্ব রেকর্ড  করে ২৬তম বার শৃঙ্গ না ছুঁয়েই ফিরলেন কামি রিতা শেরপা। এর আগে কখনো এমন দেখা যায়নি। গত ৭ মে সন্ধ্যা সাড়ে ছটায় ২৫তম বার আরোহণ করেছিলেন এভারেস্টে। ৫১ বছরের এ শেরপা তখনই বলেছিলেন থামতে চান না। এতবার এভারেস্টে আরোহণ করে তা মানুষের ধরা-ছোঁয়ার বাইরে নিয়ে যেতে চেয়েছিলেনভ ২৬তম বার এভারেস্ট আরোহণ করার জন্য বুটের নীচে পরে নিয়েছিলেন ক্র্যাম্পন। কিন্তু ঈম্বরের কৃপায় আর তার ইচ্ছাকে প্রাধান্য দিয়েই রিতা ফিরলেন। দি ওয়াল

[৩] কোনও দুর্ঘটনা ঘটেনি। শরীরও সুস্থ ছিল। এভারেস্ট বেসক্যাম্প থেকে কাঠমাণ্ডু ফিরে সংবাদমাধ্যমকে কামি বলেছেন, তিনি ফিরে এসেছেন পর্বতের দেবীর নির্দেশে। কামি বলেন, সামিটের দিকে এগিয়ে যাওয়ার আগের রাতে তিনি খারাপ স্বপ্ন দেখেন। তবুও তিনি চেষ্টা করেছিলেন সামিট করার। পৌঁছেও গিয়েছিলেন ক্যাম্প- থ্রি পর্যন্ত। কিন্তু হঠাৎই খারাপ হতে শুরু করে আবহাওয়া। কামির কাছে এটিই ছিল পাহাড়ের দেবীর পাঠানো বিপদসংকেত। তাকে পাহাড়ের দেবী বলতে চেয়েছিলেন, ‘আর চেষ্টা কোরো না। এবার ফিরে যাও।’ দেবীর কথা মেনেই ফিরে আসেন রিতা।

[৪] কোভিড মহামারীতে গত বছর এভারস্টে আরোহন বন্ধ ছিল। এবছর প্রায় ৪৩টি টিমকে এ বছর আরোহণের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এভারেস্ট বেসক্যাম্পে হাজির প্রায় ৪০০ শেরপা।

[৫] কয়েকদিন আগেই ক্যাম্প-টু থেকে ক্যাম্প-ওয়ান নামার পথে ক্রিভাসে পড়ে প্রাণ হারিয়েছেন ২৭ বছরের পেম্বা তাশি শেরপা, যিনি পাঁচবার এভারেস্ট শৃঙ্গে আরোহণ করেছিলেন। তার কয়েকদিন আগেই প্রাণ হারিয়েছেন সুইৎজারল্যান্ডের আরোহী আবদুল ওরাই ও যুক্তরাষ্ট্রের আরোহী পুয়েই লিউ।

[৬] রিতা শেরপার শৃঙ্গে আরোহণ না করে ফিরে আসাটা অনেকের কাছেই এখন স্বস্তির সংবাদ। কখন শৃঙ্গ আরোহণের মায়া ত্যাগ করে ফিরে আসতে হবে, সেই সিদ্ধান্ত নিতে পারাটাও শ্রেষ্ঠ পর্বতারোহীদের অন্যতম বড় গুণ।

[৭] ধর্মভীরু কামি রিতা অবশ্য এই কৃতিত্বটা নিজে নিতে চাননি। কৃতিত্ব দিয়েছেন এভারেস্টকে। ১৯৯৪ সালের ১৩ই মে প্রথমবার এবারেস্টের শৃঙ্গে উঠেছিলেন তিনি। কামির বয়স এখন ৫১ বছর। সব ঠিক থাকলে হয়তো ৫২তম বছরে আবার নিজের রেকর্ড নিজে ভেঙে বিশ্বে নতুন দৃষ্টান্ত তৈরি করবেন কামি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত