শিরোনাম
◈ বনশ্রীতে জুতার কারখানায় আগুন, নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ৪ ইউনিট ◈ যড়যন্ত্র না থাকলে পদ্মা সেতুতে বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়ন বন্ধ হলো কেন, প্রশ্ন হাইকোর্টের ◈ শিমুলিয়া ঘটে প্রায় ২০০ বাইক নিয়ে ছাড়লো ফেরি ◈ ‘সুপ্রিম কোর্টের ১২ বিচারপতি করোনায় আক্রান্ত’ ◈ প্রথম ১৫ ঘণ্টায় পদ্মা সেতুতে আয় দেড় কোটি টাকা ◈ বিশ্ব গণমাধ্যমে পদ্মা সেতু: জাতির গর্ব ও সামর্থ্যের প্রতীক  ◈ পদ্মা সেতুর জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছে এশিয়ার ৫ দেশ ◈ নাশকতাই ছিলো পটুয়াখালী ছাত্রদল কর্মী বাইজীদের উদ্দেশ্য: সিআইডি ◈ জাতিসংঘে র‌্যাপোটিয়ারের দাবি অর্থহীন: তথ্যমন্ত্রী ◈ খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে বাসভবনে দুই নাতনি

প্রকাশিত : ২১ মে, ২০২১, ০২:৫১ রাত
আপডেট : ২১ মে, ২০২১, ০২:৫১ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

শাকিল আহমেদ: কে গুপ্তচর, কে সাংবাদিক সেই সীমানা আইনে স্পষ্ট নেই বলেই অপপ্রয়োগের সুযোগ পেয়ে যাচ্ছেন দুর্নীতি আড়াল করতে চাওয়া কর্মকর্তারা

শাকিল আহমেদ: চীন এবং রাশিয়ার ভ্যাকসিন সংক্রান্ত চুক্তির অপ্রকাশযোগ্য বা নন ডিসক্লোজার কাগজ বা গোপনীয় কাগজ হলেও তার ছবি তোলার বা সংগ্রহের এখতিয়ার অধিকার সাংবাদিকের আছে। এটাই সাংবাদিকের কাজের সীমানা। খুব সেনসিটিভ হলে তা প্রচার হবে কিনা ; সেটি ভিন্ন প্রসঙ্গ। সাধারণ নাগরিকের জন্যও গোপন কাগজ বা স্থাপনা ঘোষণা দিয়ে জানাতে হবে যে এই কক্ষটি গোপনীয় কক্ষ; একান্ত সচিবের কক্ষ সেটিও নয়। প্রচলিত আইনেও যদি সাংবাদিকের বিচার করতে হয় তাহলে তিনি ‘গুপ্তচর’ হয়ে ভিন্ন রাষ্ট্রে তা সরবরাহের অভিপ্রায় করেছেন এবং তা প্রমাণ করা গেলেই কেবল সেটি শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

শাস্তি ১৪ বছরের জেল। কিন্তু কে গুপ্তচর, কে সাংবাদিক সেই সীমানা আইনে স্পষ্ট নেই বলেই অপপ্রয়োগের সুযোগ পেয়ে যাচ্ছেন দুর্নীতি আড়াল করতে চাওয়া কর্মকর্তারা। মূল আইনটিও যুগে যুগে জনগণের বিপক্ষেই কাজে লেগেছে। লেখক : সিনিয়র সাংবাদিক। সিনিয়র সাংবাদিক। ফেসবুক থেকে

  • সর্বশেষ