প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মশা নিয়ন্ত্রণের ওপর সবচেয়ে বেশি জোর দিয়েছি: মেয়র তাপস

সুজিৎ নন্দী: [২] ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস বলেছেন, আসন্ন বর্ষা মৌসুমে ঢাকাবাসীকে ডেঙ্গুর প্রকোপ ও জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি দিতে সক্ষম হবো। মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পরপরই জনগণের মৌলিক সেবা নিশ্চিত করার উদ্যোগ গ্রহণ করি এবং করোনা মহামারির মাঝেই যাতে নগরবাসীকে এডিস মশার মুখোমুখি হতে না হয় সেজন্য কাজ শুরু করি।

[৩] তিনি আরো বলেন, মশক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমকে নতুন করে ঢেলে সাজানো হয়েছে। সফলতা পেয়েছি। গত বছর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে কোনো প্রাণহানি হয়নি। চলতি বছর জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি মাসে কিউলেক্স মশকের উপদ্রব কিছুটা বেড়েছিল। আমাদের কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে দুই সপ্তাহের মধ্যেই কিউলেক্স মশা নিয়ন্ত্রণে আনতে আমরা সক্ষম হয়েছি।

[৪] মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার এক বছর পূর্তি উপলক্ষে ‘উন্নত ঢাকার ভিত রচনা’ শীর্ষক এই সংবাদ সম্মেলনে বুধবার নগর ভবনে মেয়র হানিফ মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে ডিএসসিসির মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস এ কথা বলেন।

[৫] তিনি আরো বলেন, আমার নির্বাচনী ইশতেহারে ঘোষিত ঐতিহ্যের ঢাকা, সুন্দর ঢাকা সচল ঢাকা, সুশাসিত ঢাকা ও আধুনিক ঢাকার রূপরেখাকে সাদরে গ্রহণ করে ঢাকাবাসী আমাকে তাদেরকে সেবা করার সুযোগ দেন। নির্বাচনে বিজয়ের পর উন্নত ঢাকা গড়ে তুলতে যখন পরিকল্পনা সুনির্দিষ্ট করছিলাম, তখন সারাবিশ্বের মতো আমাদের পরিকল্পনায় বাঁধা হয়ে দাঁড়ায় করোনাভাইরাস।

[৬] জলাবদ্ধতা প্রসঙ্গে শেখ ফজলে নূর তাপস বলেছেন, আগামী মাসের ২০ তারিখের মধ্যে করপোরেশনের ৭১৫ কিলোমিটার এবং ওয়াসার কাছ থেকে পাওয়া ১৮৫ কিলোমিটার বদ্ধ নর্দমার মুখ পরিষ্কার কার্যক্রম সম্পন্ন করার লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে কাজ করছি।

[৭] তিনি আরো বলেন, খাল ও বক্স কালভার্টগুলো থেকে আমরা ১০ লক্ষাধিক টন পলি ও বর্জ্য অপসারণ করতে সক্ষম হয়েছি। এতে খাল ও বক্স কালভার্টগুলোতে দৃশ্যমানভাবে পানি প্রবাহ বেড়েছে। ওয়াসার কাছ থেকে পাওয়া কমলাপুর ও ধোলাইখাল পাম্প স্টেশনের ছয়টি পাম্প মেশিনের মধ্যে কমলাপুরের একটি এবং ধোলাইখালের দুটি পাম্প মেশিন সচল করতে সক্ষম হয়েছি এবং বাকি তিনটি পাম্প মেশিন সচল করার কার্যক্রম চলমান রয়েছে। একই সঙ্গে আমরা ৩০টি ভ্রাম্যমাণ পাম্প মেশিন ক্রয় প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার শেষ পর্যায়ে রয়েছি।

[৮] উপস্থিত ছিলেন করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদ আহাম্মাদ, করপোরেশনের স্থায়ী কমিটিগুলোর সভাপতি ও সদস্য ও বিভাগীয় প্রধানরা। মেয়র বলেন, ওয়ার্ড কাউন্সিলরা ও সংসদ সদস্যদের সুপারিশের ৭৫টি ওয়ার্ড এবং ৮টি সংসদীয় এলাকায় নিজস্ব অর্থায়নে ১২৫ কোটি টাকা ব্যয়ে সড়ক অবকাঠামো উন্নয়ন ও সংস্কার কাজ হাতে নিয়েছি। যা বর্তমান অর্থবছরে সমাপ্ত হবে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত