প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] যুক্তরাজ্যে সরকার স্বাস্থ্যকর্মীদের যথাযথ সম্মান দিচ্ছে না বলে অভিযোগ

সুমাইয়া ঐশী: [২] অসন্তোষ প্রকাশ করে করোনা আক্রান্ত রোরিস জনসনকে সেবাদানকারী নার্সের পদত্যাগ। [৩] দ্রুত গতিতে ভ্যাকসিনেশনের কারণে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে যুক্তরাজ্যের করোনা পরিস্থিতি উন্নতির দিকে যাচ্ছে। এরপরও সাধারণ জনগণ ও স্বাস্থ্যকর্মীদের অসন্তোষের সম্মুখীন দেশটির সরকার। অভিযোগ, সরকারের পক্ষ থেকে স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রতি অসম্মানজনক আচরণ করা হয়েছে। এরই মধ্যে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা এনএইচএস থেকে পদত্যাগ করেছেন নার্স জেনি ম্যাকজি। ইয়ন

[৪] ২০২০ সালের এপ্রিলে করোনা থেকে সুস্থ হন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। এরপর তার চিকিৎসায় যারা অবদান রেখেছিলেন তাদের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানান তিনি। এরমধ্যে জেনি এবং আরও একজন নার্সের প্রতি বিশেষ ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন বরিস। তবে এরপরও বিতর্ক কাটেনি।

[৫] মহামারির সময়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের যথাযোগ্য সম্মান দেওয়া নিয়ে ব্রিটিশ সরকারের প্রতি অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন অনেকে। এর মধ্যে আছেন জেনিও। তিনি জানান, করোনা মহামারিতে জীবনের তোয়াক্কা না করে কাজ করা স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষার দিতে উদাসীন সরকার। আমরা আমাদের কাজের জন্য সম্মানও পাচ্ছি না। এসবের মধ্যে ভীষণভাবে বিরক্ত হয়েই চাকরি ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। দ্য গার্ডিয়ান

[৬] সংবাদ মাধ্যম রয়টার্স জানায়, সম্প্রতি স্বাস্থ্যকর্মীদের বেতন মাত্র ১ শতাংশ বৃদ্ধির প্রস্তাব নিয়ে ব্রিটিশ সরকার ব্যাপক অসন্তোষের মুখে পড়ে। এটি স্বাস্থ্যকর্মীদের সরাসরি অপমান বলেও মন্ত্যব্য করেন অনেকে। এনিয়ে জেনি জানান, অনেক নার্সই মনে করছেন সরকার এ সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কার্যকরী কোনও ভূমিকা রাখছে না। অবশ্য অনেক মিশ্র প্রতিক্রিয়াও আছেন। বিষয়টি নিয়ে আমি খুবই হতাশ। সম্পাদনা: আসিফুজ্জামান পৃথিল

 

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত