প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ইসরায়েলের পক্ষে তৃতীয় ভেটো দিল যুক্তরাষ্ট্র, গাজায় হামলা চালিয়ে যেতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর উসকানি

রাশিদুল ইসলাম : [২] ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি বর্বরতার নিন্দা ও যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠার আহ্বান সম্বলিত যৌথ বিবৃতি প্রকাশে ফের বাধা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ ফের এ ধরণের একটি বিবৃতি প্রকাশের উদ্যোগ নিলে যুক্তরাষ্ট্রের ভেটোর কারণে তা সম্ভব হয়নি। এ নিয়ে গত কয়েক দিনে তিনবার এ সংক্রান্ত প্রস্তাবে ভেটো দিল যুক্তরাষ্ট্র। বিবিসি

[৩] মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন বলেছেন, ফিলিস্তিনের হামলা থেকে বাঁচতে ইসরায়েলের আত্মরক্ষার অধিকার আছে। ডেনমার্কের কোপেনহেগেনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ মন্তব্যের পুনরাবৃত্তি করেন তিনি। একইসঙ্গে ইসরায়েলে রকেট নিক্ষেপ বন্ধে হামাসের প্রতি আহ্বান জানান ব্লিনকেন।

[৪] ব্লিনকেন বেসামরিক নাগরিক ও শিশুদের সুরক্ষায় উভয়পক্ষকে সংযত হওয়ার আহ্বান জানান। মার্কিন এই পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ক্রমবর্ধমান সহিংসতার ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।

[৫] এদিকে ফিলিস্তিনি জনগণের ওপর ইসরায়েল ‘যুদ্ধাপরাধ’ চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন ফিলিস্তিনি স্বশাসিত সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ আল-মালিকি। তিনি অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার ওপর চলমান ইসরায়েলি গণহত্যা বন্ধ করতে তেল আবিবের ওপর চাপ সৃষ্টি করার জন্য আন্তর্জাতিক বিশে^র কাছে আহ্বান জানান।

[৬] রোববার রাতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের এক ভার্চুয়াল বৈঠকে দেয়া বক্তৃতায় এ আহ্বান জানান মালিকি। তিনি বলেন, ইসরায়েল গাজায় একসঙ্গে একটি পরিবারের সবাইকে হত্যা করছে। ইসরাইল ফিলিস্তিনিদেরকে তাদের ঘরবাড়ি থেকে পুরোপুরি বিতাড়িত করে বায়তুল মুকাদ্দাস থেকে ফিলিস্তিনি জনগণকে সমূলে উৎপাটন করার চেষ্টা করে যাচ্ছে। ইসরায়েল আমাদের জনগণের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধ ও মানবতা বিরোধী অপরাধ করে যাচ্ছে। এসব পরিভাষা সহজে কেউ ব্যবহার করতে চায় না কিন্তু ইসরায়েল প্রকৃত অর্থেই এসব অপরাধ করে যাচ্ছে।

[৭] ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইসরায়েল এক ধরনের কাজ করে তার ভিন্ন ধরনের ফল আশা করছে। ইসরায়েল সেনারা রমজানে এবং শবে কদরে তাদের পবিত্রতম আল আকসা মসজিদে আগ্রাসন চালাবে আর ফিলিস্তিনিরা নীরবে তা সহ্য করবে? তেল আবিব কি মনে করে ফিলিস্তিনিরা অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় বসবাস করবে আর ইসরায়েলি বসতি স্থাপনকারীদের হাতে তাদের পাশের বাড়িটির দখল হয়ে যাওয়া চেয়ে চেয়ে দেখবে? তারা কি এটা প্রত্যাশা করে যে, তারা ফিলিস্তিনিদের ভূখণ্ড জবরদখল করে যা খুশি তাই করবে এবং এরপর ফিলিস্তিনিরা তাদের সঙ্গে সহাবস্থান করবে? পৃথিবীতে এমন কোনও মানুষ নেই যে এই বাস্তবতা সহ্য করবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত