প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর কাউকে ভ্যাকসিন উৎপাদনের অনুমতি দেয়নি

সাদেক আলী: দেশে নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে চীনের কোনো ভ্যাকসিন উৎপাদনের জন্য বাংলাদেশের কাউকে অনুমতি দেয়নি ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর। যারা ভ্যাকসিন উৎপাদন করতে পারবে তাদের বিষয়ে একটি শর্টলিস্ট করা হলেও এখন পর্যন্ত কাউকে অনুমতি দেওয়া হয়নি। এক্ষেত্রে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তের পরে ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর অনুমতির বিষয়ে জানাবে। এমনকি ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের কেউ কোনো মিডিয়ায় অনুমতির বিষয়ে কিছু বলেনি। রোববার (১৬ মে) এ তথ্য নিশ্চিত করেন ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান। সারাবাংলা

তিনি বলেন, ‘চীনের কোনো ভ্যাকসিন উৎপাদন বিষয়ে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কাউকে অনুমতি দেওয়া হয়নি। বাংলাদেশে যারা ভ্যাকসিন উৎপাদন করতে পারে তাদের একটা শর্টলিস্ট মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি।’

এর আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে শুরু করে বিভিন্ন গণমাধ্যমে দেখা যায়, ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের সূত্র দিয়ে বলা হয়েছে, চীনের ভ্যাকসিন উৎপাদনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘আমিও বিভিন্ন জায়গায় দেখলাম ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের সূত্র ব্যবহার করে বলা হচ্ছে, আমরা ভ্যাকসিন উৎপাদনের অনুমতি দিয়েছি। ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের কে বলেছে, আমরা অনুমতি দিয়েছি বা এই মাসেই উৎপাদন করবে? এই মাসেই উৎপাদন শুরু হবে এমনটা ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের কেউ বলেনি।’

তিনি বলেন, ‘ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরে একটি রিকোমেন্ডেশন পাঠিয়েছে শর্টলিস্টি করে। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে মন্ত্রণালয় থেকে। সেখান থেকে সিদ্ধান্ত আসার পর ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর ব্যবস্থা নেবে। সেই পর্যায়ে তো এখনো আসেনি।’

এর আগে ২৯ এপ্রিল নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশে চীনে উদ্ভাবিত সিনোফার্মা ভ্যাকসিন জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দেয় ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত