প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পুলিশের ফেসবুকের ইনবক্সে মেসেজ আমি অপহরণ হইছি, স্যার

সুজন কৈরী : [২] নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ থেকে বাংলাদেশ পুলিশের ফেসবুক পেজে এমনই একটি বার্তা আসে। বার্তাটি পাওয়ার পর পুলিশ সদর দপ্তরের মিডিয়া ও পাবলিক রিলেশন্স বিভাগ সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশকে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেয়।

[৩] বার্তায় বাবলু নামে একজন লেখেন, আমি মোহাম্মদ বাবলু। আমি অপহরণ হইছি, স্যার। আমি গতকাল ২টায় অপহরণ হই। আমার পরিবার সাথে সাথে বিষয়টি আমার সদর থানা বেগমগঞ্জ থানায় জানায়। পরে আমার পরিবারের কাছে থাকা ২৩ হাজার ও আমার কাজিন থেকে নেওয়া ২২ হাজারসহ মোট ৪৫ হাজার টাকা মুক্তিপণ নিয়ে আমাকে মুক্তি দেওয়া হয়। তাদের কথা মতো টাকা দেওয়ার পরেও আমাকে মারধর করে জখম করা হয়। বিষয়টি থানায় জানিয়েছি, দয়া করে আমাকে সাহায্য করুন।

[৪] বার্তাটি পড়ে বাবলু ও তার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে পুলিশ। অ‌ভি‌যোগকারীসহ সং‌শ্লিষ্ট সক‌লের সঙ্গে কথা ব‌লে ঘটনা সম্প‌র্কে সম্যক অবগত হয়। তারপর এ বিষয়ে বেগমগঞ্জ থানার ওসি মুহম্মদ কামরুজ্জামান সিকদারকে নির্দেশনা দেয় দ্রুত ব্যবস্থা নিতে। তিনিও বিষয়টি তদন্ত করে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। অপহরণের সঙ্গে জড়িত পাঁচজনকে গ্রেপ্তার হয়।

[৫] পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি (মি‌ডিয়া এন্ড পাব‌লিক রি‌লেশন্স) মো. সোহেল রানা বলেন, প্রাথমিক তদন্তে জানা যায়, অভিযোগকারী যুবক নি‌জেই মাদকাসক্ত। সে বিভিন্ন এলাকায় বসবাস করে। সেখান থেকে সে তার এক কাজিনকে সাথে নিয়ে অভিযোগে বেগমগঞ্জ থানা এলাকায় মাদক সেবন করতে গিয়েছিল। তাকে নতুন পেয়ে ওই এলাকার অন্য কিছু বিপথগামী ছেলে তাকে হেনস্থা করে এবং তাকে একটি কক্ষে আটকে রাখে। তার কাছে যে টাকা-পয়সা ছিল তা ছিনিয়ে নেয়। তাকে ছাড়িয়ে নিতে আরও টাকা আনতে বলে। সে পরিপ্রেক্ষিতে মোট ৪৫ হাজার টাকা দিয়ে সে ও তার কাজিন ছাড়া পায়। টাকা আদায় করতে অভিযোগকারীকে মারধরও করা হয়।

[৬] পরে মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইংয়ের বার্তার প্রেক্ষিতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ বিষয়ে একটি মামলা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের নাম- অন্তর, নাইম, র‌নি, শওকত ও র‌কি।

[৭] এআইজি সোহেল রানা বলেন, অভিযোগকারীও ভবিষ্যতে কখনই মাদক সেবন করবেন না বা মাদকের সাথে কোনো প্রকার সম্পৃক্ততা রাখবেন না, এই বলে মুচলেকা দিয়েছেন। প্র‌য়োজ‌নে ঘটনার ভিক‌টিম ও অ‌ভি‌যোগকারী‌কে মাদকাস‌ক্তি থে‌কে ফেরা‌তে চি‌কিৎস‌কের সহায়তা নি‌তেও পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত