প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভারতে ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু কমেছে

ফাতেমা আহমেদ: [২] ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় প্রাণ গেছে আরো তিন হাজার ৮শ ৭৯ জনের। এই সময়ে ৩ লাখ ২৬ হাজার ১২৩ জনের শরীরে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে। ওয়ার্ল্ডোমিটার

[৩] বাংলাদেশ সংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গে করোনার সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। একদিনে রেকর্ড সংখ্যক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে রাজ্যটিতে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেছেন ১৩৬ জন। এ নিয়ে পশ্চিমবঙ্গে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১২ হাজার ৯৯৩ জনে। করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২০ হাজার ৮৪৬ জন। এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১০ লাখ ৯৪ হাজার ৮০২ জন। আনন্দবাজার

[৪] ভারতে করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ শুরুর পর প্রায় প্রতিদিনই ২ হাজার জনেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। প্রতিদিন আক্রান্ত হচ্ছেন ৩ লাখের বেশি। দেশটির এমন পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। বিশেষ করে হাসপাতালগুলোতে যেভাবে কোভিড রোগীদের ভিড় বেড়ে চলেছে, তা অত্যন্ত দুশ্চিন্তার বিষয় বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। বাংলা নিউজ

[৬] শুক্রবার গোটা বিশ্বের করোনা পরিস্থিতি জানাতে সংবাদ সম্মেলন করেন হু প্রধান টেড্রস অ্যাডানম গেব্রিয়েসাস। তিনি বলেন, ‘ভারতের পরিস্থিতি অত্যন্ত উদ্বেগজনক। বিভিন্ন রাজ্যে যে ভাবে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়ে চলেছে এবং হাসপাতালগুলিতে যে ভাবে ভিড় বাড়ছে তা সত্যিই দুশ্চিন্তার বিষয়।’ বার্তা ২৪

[৭] গত বছর করোনার প্রথম ঢেউয়ের ধাক্কা সামাল দিতেও হিমশিম খেয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু সে বার ক্ষয়ক্ষতি এমন বিরাট আকার ধারণ করেনি। এ বার ওষুধ, অক্সিজেন এবং ভেন্টিলেটরের জন্য অন্য দেশ থেকে সাহায্য নিতে হচ্ছে ভারতকে। বিপদে ভারতের পাশে থাকার জন্য সেই দেশগুলিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন টেড্রস। ইত্তেফাক

[৮] দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় ভারতে মোট সংক্রমণ প্রায় আড়াই কোটি। এই মুহূর্তে দৈনিক সংক্রমণ সাড়ে ৩ লাখের মতো। টিকার চাহিদা ব্যাপক হলেও জোগানের অভাবে ব্যাহত হচ্ছে সার্বিক টিকাকরণ। কিন্তু বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে, গণ টিকাকরণই একমাত্র পথ। সম্পাদনা: সালেহ্ বিপ্লব

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত