প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভয় উড়িয়ে করোনায় মৃতের সৎকার করলেন মুসলিমরা

ডেস্ক রিপোর্ট: করোনায় মারা গেলেন এক বৃদ্ধ। একমাত্র ছেলে দিশেহারা হয়ে সাহায্য চেয়েছেন, কিন্তু কেউ এগিয়ে আসেননি। শেষমেশ খুশির ঈদের উৎসব থামিয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন মুসলিমরাই।

শুক্রবার (১৪ মে) এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলায়।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম আনন্দবাজার জানিয়েছে, আশিক মোল্লা, গোলাম সুবানী, গোলাম সাব্বার, শেখ সানিরা হুগলির পোলবা-দাদপুর ব্লকের বাবনান গ্রামের বাসিন্দা। শুক্রবার খুশির ঈদের নমাজ পড়ে তারা নিজেদের মতোই পালন করছিলেন উৎসব। এরই মধ্যে হঠাৎ খবর এলো, পাশের গ্রামের ৭২ বছরের হরেন্দ্রনাথ সাধুখাঁ বৃহস্পতিবার (১৩ মে) গভীর রাতে মারা গেছেন। তিন দিন ধরে জ্বরে ভুগছিলেন তিনি। করোনা পরীক্ষা করার আগেই তার মৃত্যু হয়।

ওই প্রতিবেশীরা জানতে পারেন, করোনা সংক্রমণের ভয়ে কেউ মৃতের বাড়িতে পা দেননি। মৃতের একমাত্র ছেলে চন্দন দিশেহারা হয়ে সাহায্য চাইলেও এগিয়ে আসেননি কেউ। এ কথা শুনেই ধর্মের সংকীর্ণতা সরিয়ে বেরিয়ে পড়েন মুসলিম প্রতিবেশীরা। করোনার ভয় উপেক্ষা করে হাজির হন মৃতের বাড়িতে। নিজেরা খাট বেঁধে, ফুল মালায় সাজিয়ে তোলেন মৃতদেহ। চার ভিন্নধর্মী মানুষের কাঁধেই শেষ যাত্রায় যান হরেন্দ্রনাথ সাঁধুখা। শ্মশানেও কাঠ জোগাড় করা থেকে শুরু করে দাহ করার শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত পিতৃহারা সন্তানের পাশে ছিলেন আশিস, গোলাম, সানিরা। সময়টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত