প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জনগণ স্বাস্থ্যবিধি না মানলে লকডাউনের সময়সীমা আরও বাড়ানো হতে পারে: তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী

সমীরণ রায়: [২] ড. হাছান মাহমুদ আরও বলেন, লকডাউন কোনো স্থায়ী সমাধান নয়। দেশে করোনাভাইরাসের কারণে চলমান লকডাউন (বিধিনিষেধ) আরো বাড়তে পারে। করোনার এই সময়ে আওয়ামী লীগ মানুষের পাশে আছে। কিন্তু বিএনপির রাজনীতি বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের স্বাস্থ্য ও শাস্তির মধ্যে সীমাবদ্ধ হয়ে পড়েছে। দোষারোপের রাজনীতি বন্ধ করে অন্তত ঈদের পর মানুষের পাশে দাঁড়াতে বিএনপির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

[৩] আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বলেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিএনপি ফটোসেশনেও অনুপস্থিত। তাদের কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। অস্তিত্ব জানান দেওয়ার জন্য তাদের মাঝেমধ্যে দেখা যায় টেলিভিশনের পর্দায় এবং ওয়েবিনারে।

[৪] তথ্যমন্ত্রী বলেন, রাজনীতি জনগণের জন্য। আমাদের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগণের জন্য রাজনীতি করেন। আওয়ামী লীগ জনগণের জন্যই রাজনীতি করে। সেজন্যই আওয়ামী লীগ করোনা মহামারির এই দুঃসময়ে জনগণের পাশে আছে। আমাদের রাজনীতি জনগণের জন্য, সাধারণ মানুষের জন্য।

[৫] তিনি আরও বলেন, বিএনপির সমগ্র রাজনীতি দু’টি বিষয় ঘিরে আবর্তিত হচ্ছে। একটি হচ্ছে তারেক রহমানের শাস্তি এবং আরেকটি হচ্ছে খালেদা জিয়ার শাস্তি ও স্বাস্থ্য। করোনার ভাইরাসের টিকা বিষয়েও বিএনপির নানা ধরনের সমালোচনা করেছে। তারা বলেছিল ভারতের এই টিকা নিলে মানুষের মৃত্যুও হতে পারে। তারাই আবার নিজেরাই গিয়ে টিকা নিয়ে বলেছে এটা খুবই ভালো টিকা। আবার কেউ কেউ লজ্জায় প্রকাশ করেনি।

[৬] ড. হাছান মাহমুদ তার বক্তব্যে দেশবাসীকে করোনায় স্বাস্থ্যসুরক্ষা বিধি মেনে চলতে অনুরোধ জানান।

[৭] বৃহস্পতিবার দুপুরে ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত