প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খুলনায় ‘ডিজিটাল রাইস প্রকিউরমেন্ট অ্যাপস’ এর মাধ্যমে সরকারিভাবে চাল সংগ্রহ কার্যক্রম শুরু

আনিস তপন : বুধবার ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে যুক্ত হয়ে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। তিনি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ কোন স্বপ্ন নয়, এটা এখন বাস্তবতা। প্রত্যন্ত গ্রামের কৃষকও এখন এর সুবিধা পাচ্ছে।

খুলনা জেলা প্রশাসনের উদ্যগে চাল সংগ্রহ কার্যক্রমের খুলনা জেলায় সরকারি উদ্বোধন করেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, কৃষক বাঁচলে; দেশ বাঁচবে। কৃষকের স্বার্থের কথা চিন্তা করে এবারের বোরো সংগ্রহে ধান-চাল ক্রয়ে ধানকে অগ্রাধিকার দিতে হবে এবং কোনভাবেই কৃষককে হয়রানি করা যাবে না। ইতোমধ্যেই ১৩টি নির্দেশনা দিয়ে প্রতিটি জেলার খাদ্য অফিসে প্রেরণ করা হয়েছে। এ বছর কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি ৬লক্ষ ৫০ হাজার মেট্রিক টন ধান ক্রয় করা হবে।

চালের মান নিয়ে কোন আপোষ করা হবে না জানিয়ে সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, চালের মান ঠিক রেখে, সঠিকভাবে শতভাগ সংগ্রহ সম্পন্ন করার জন্য ইতোমধ্যেই মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তা- কর্মচারীদেরকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

এসময়র খাদ্যবান্ধব কর্মসূচিও অনলাইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে বলে জানান তিনি।

মন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ সরকারের সর্বশেষ নির্বাচনী ইশতেহারের অন্যতম অঙ্গীকার। ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণের মাধ্যমে সরকারি-বেসরকারি প্রতিটি কাজে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও গতি আনায়ন করা সম্ভব।

‘ডিজিটাল রাইস প্রকিউরমেন্ট অ্যাপস’ এর মাধ্যমে কৃষকদের নিকট থেকে ধান এবং মিলাদের নিকট থেকে চাল ক্রয়ের ফলে একদিকে যেমন অল্প সময়ের মধ্যে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার সাথে ধান-চাল সংগ্রহ করা সম্ভব হবে। অপরদিকে খাদ্য বিভাগ, কৃষক এবং মিলারদের মধ্যে দ্রুত সংযোগ স্থাপনের মাধ্যমে ধান-চাল সংগ্রহ কার্যক্রমে গতি আনয়ন করা সম্ভব হবে।

উল্লেখ্য, ‘ডিজিটাল রাইস প্রকিউরমেন্ট অ্যাপস’ যা গতবছর খুলনা জেলায় নির্বিঘ্নে সফলতার সাথে, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বজায় রেখে চাল সংগ্রহে এক অনন্য নজির সৃষ্টি করেছে। গত মৌসুমে খুলনা জেলায় ‘ডিজিটাল রাইস প্রকিউরমেন্ট অ্যাপসে’র মাধ্যমে মিলারদের নিকট থেকে চাল ক্রয় কার্যক্রম শুরু হয়। খুলনা জেলায় শতভাগ চাল ক্রয় ডিজিটাল অ্যাপসের মাধ্যমে সফলতার সাথে সম্পন্ন হওয়ায় সমগ্র বাংলাদেশে ডিজিটাল উপায়ে চাল সংগ্রহ করায় তার প্রভাব পড়ে।

ফলে এ বছর দেশের বিভিন্ন স্থানে ডিজিটাল অ্যাপস ব্যবহার করে চাল সংগ্রহের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত