প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] আগামী দিনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় পররাষ্ট্রনীতিকে সমৃদ্ধ করতে সকলের সহযোগিতা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

কূটনৈতিক প্রতিবেদক: [২] ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে এক আলোচনা যোগ দিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর অধীনে উন্নয়নের মহাসড়কে দ্রুতগতিতে ধাবমান বাংলাদেশ নিঃসন্দেহে একটি নেতৃত্বশীল ও আস্থার স্থান লাভ করতে সক্ষম হয়েছে।

[৩] বাংলাদেশের এই মর্যাদাশীল অবস্থানকে সুসংহত করা এবং ভবিষ্যৎ চ্যালেঞ্জসমূহ চিহ্নিত করে তা মোকাবিলায় এখন থেকেই কার্যকর পদক্ষেপ নিতে বুদ্ধিজীবীদের মূল্যবান মতামত তুলে ধরার অনুরোধ জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

[৪] তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর সময় বিশ্বের বৃহৎ ক্ষমতাশালী রাষ্ট্রসমূহসহ প্রায় ১৫০ দেশের রাষ্ট্র বা সরকার প্রধানের কাছ থেকে শুভেচ্ছাবার্তা এবং ৩৩টি ভিডিও বার্তা পাওয়া গেছে।

[৫] এসব বার্তায় বিশ্ব নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশের অভাবনীয় সাফল্যের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং প্রধানমন্ত্রীর মানবিক ও বিচক্ষণ নেতৃত্বের প্রতি আস্থা প্রকাশ করেন।

[৬] ড. মোমেন বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা ও কোভিড-১৯ মহামারির মতো বিষয়গুলো মোকাবিলায় এ মন্ত্রণালয় অত্যন্ত সক্রিয় ভূমিকা পালন করে চলেছে। অর্থনৈতিক কূটনীতিকে বেগবান করার পাশাপাশি দূতাবাসসমূহের সেবার মান বৃদ্ধিতে বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে।

[৭] বিদেশে বাংলাদেশ দূতাবাসসমূহকে জনমুখী করার জন্য ইতোমধ্যে ‘দূতাবাস’ অ্যাপ চালু করা হয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসেই ৩৪টি সেবা পাওয়া সম্ভব।

[৮] বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে পদাপর্ণের চ্যালেঞ্জ ও সুযোগ তুলে ধরার অনুরোধ করেন তিনি।

[৯] প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বিশ্ব পরিমণ্ডলে বাংলাদেশের মর্যাদাশীল স্থানে অধিষ্ঠিত হওয়ার প্রেক্ষাপটে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণের পথকে মসৃণ করার লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সর্বাধিক পঠিত