প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] তদন্ত কমিটির মুখোমুখি রাবির বিদায়ী উপাচার্য, নিয়োগপ্রাপ্তদের যোগদান কার্যক্রম স্থগিত

শরীফ শাওন, মঈন উদ্দীন: [২] শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে বিদায়ের দিন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান ১৩৭ জন এডহক নিয়োগ দেন।

[৩] শনিবার মন্ত্রণালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য (রুটিন দায়িত্বে) অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহার দপ্তরে উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারের সঙ্গে বৈঠক করেন। সদ্য বিদায়ী উপাচার্য বিকেল ৩টার দিকে উপাচার্যের দপ্তরে আসেন।

[৪] একই দিনে রাবির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ৬ মে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পত্রের মাধ্যমে জানানো হয়েছে যে, বিশ্ববিদ্যালয়ে গত ৫/৬ মে ইস্যু করা সব অ্যাডহক ভিত্তিতে নিয়োগ অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছে এবং এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক একটি তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে। বিধায় তদন্ত কমিটির রিপোর্টের পরিপ্রেক্ষিতে কোনোরূপ সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত এসব নিয়োগপত্রের যোগদান এবং তৎসংশ্লিষ্ট সব ধরনের কার্যক্রম স্থগিত রাখতে অনুরোধ করা হলো।

[৫] শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটিকে সাক্ষাৎকার শেষে অধ্যাপক আবদুস সালাম বলেন, তিনি অবৈধ নিয়োগপত্রে স্বাক্ষর না করতে নিয়োগের আগের দিন আত্মগোপনে গিয়েছিলেন।

[৬] বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, নিয়োগপত্রে রেজিস্ট্রার অধ্যাপক আবদুস সালামের পরিবর্তে উপাচার্যের নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করেছিলেন সংস্থাপন শাখার উপ-রেজিস্ট্রার মো. ইউসুফ আলী।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত