প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মাদারীপুর বাংলাবাজার ঘাটে বেড়েছে ঘরমুখো চাপ যাত্রীদের

আরিফুর রহমান:[২] আর কয়েক দিন পরই ঈদ। ঈদ সামনে রেখে মাদারীপুরের বাংলাবাজার নৌপথে দক্ষিণাঞ্চলমুখী যাত্রী ও যানবাহনের প্রচন্ড চাপ। ফেরিতে যাত্রীদের চাপ সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে ঘাট কর্তৃপক্ষ।

[৩] বাংলাবাজার ঘাট সূত্রে জানা গেছে,‘যাত্রীদের পারাপারের জন্য ফেরির বিকল্প কোন নৌযান না থাকায় ফেরিতে যাত্রীদের প্রচুর চাপ রয়েছে। ঘাটে ফেরি ভিড়লেই যাত্রী উঠে যাচ্ছে। এতে করে গাড়ি উঠতে পারছে না ফেরিতে। বাধ্য হয়েই শুধু যাত্রীদের নিয়ে ফেরি চলাচল করছে। এদিকে গনপরিবহন বন্ধ থাকায় দূর পাল্লার যাত্রীরা শিবচরের বাংলাবাজার ঘাটে এসে বিপাকে পড়ছে।

[৪] মাইক্রোবাস, থ্রি হুইলার আর মোটরসাইকেলযোগে যাত্রীদের গন্তব্যে পৌছাতে হচ্ছে। পরিবার-পরিজন নিয়ে বাড়ি ফেরা যাত্রীদের দূর্ভোগ আরো বেশি। দীর্ঘপথ তাদের কয়েক দফা গাড়ি পাল্টে যেতে হচ্ছে। আর গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত ভাড়া।

[৫] বিআইডব্লিউটিসি’র বাংলাবাজার ফেরিঘাটের ব্যবস্থাপক মো. সালাহউদ্দিন আহমেদ জানান,‘ফেরি চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। এখন থেকে ঈদের পরবর্তী এক/দেড় সপ্তাহ পর্যন্ত যাত্রীদের চাপ থাকবে ঘাটে। শুক্রবার সকালে একটি রোরো ফেরিতে কোন গাড়ি ছিল না। শুধুমাত্র যাত্রী নিয়েই ফেরিটি শিমুলিয়া থেকে বাংলাবাজার ঘাটে আসে।

[৬] সারাদিনই যাত্রীদের বেশ চাপ রয়েছে ঘাটেপদ্মায় লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ থাকায় ফেরিতে চাপ বেড়েছে যাত্রীদের। আজ শুক্রবার সকাল থেকেই ঘাটে যাত্রীদের ভিড় লক্ষ করা যাচ্ছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত থেকেই ঘাটে ধীরে ধীরে মানুষের চাপ বাড়তে থাকে। এই নৌপথে দক্ষিণ অঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ যাতায়াত করছে।

[৭] আজ সকালে ঘাটে যানবাহনের চাপ কয়েক গুণ বেড়ে গেছে। বেলা ১১টা নাগাদ ঘাটে যানবাহন ও মানুষের জট। করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে চলাচলে বিধিনিষেধ থাকলেও মানুষের মধ্যে তেমন সতর্কতা নেই।সম্পাদনা:অনন্যা আফরিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত