প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ৩৬ বছর বয়সে পাকিস্তান টেস্ট দলে অভিষেক তাবিশ খানের

রাহুল রাজ: [২] কদিন আগে ৩২ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলেছেন লঙ্কান অলরাউন্ডার থিসারা পেরে। ৩০ পার হলেও তার মতো অনেকেই ছেড়ে দেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। সেখানে সবাই চমকে দিয়ে ৩৬ বছর বয়সে পাকিস্তানের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হলো পেসার তাবিশ খানের।

[৩] দুই ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে আজ মুখোমুখি হয়ে পাকিস্তান ও জিম্বাবুয়ে। এই ম্যাচেই কোচ মিসবাহ উল হকের হাত থেকে টেস্ট ক্যাপ পেয়েছেন তাবিশ খান। ঘরোয়া ত্রিকেটে বছরের পর বছর দারুণ পারফর্মের ফল হিসেবেও অনেক দেরিতে হলেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের স্বাদ পেলেন এই পেসার।

[৪] ঘরোয়া ক্রিকেটে অত্যন্ত ধারাবাহিক তাবিশ। ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটে ৫৯৮টি উইকেট রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। ক্যারিয়ারের ৬০০ উইকেট পূর্ণ হতে পারে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুই উইকেট পেলেই। তাবিশ খান এই উইকেট নিতে ম্যাচ খেলেছেন ১৩৭ টি। তার চাইতে কেবল বেশি ম্যাচ খেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পাকিস্তানের হয়ে অভিষেকের রেকর্ড আছে খালিদ ইবাদুল্লাহর। ২১৮ টি প্রথম শ্রেণীর ম্যাচ খেলার পর অভিষেক হয়েছিল তার।

[৫] আরেকটি রেকর্ডেও পিছিয়ে আছেন তাবিশ। বয়স ৩৬ হলেও পাকিস্তানের পক্ষে সবচেয়ে বেশি বয়সে টেস্ট অভিষেকের রেকর্ড গড়া হয়নি তার। কেননা এই রেকর্ডটি মিরান বক্সের দখলে। সেই ১৯৫৪-৫৫ মৌসুমের ঘটনা। লাহোরে ভারতের বিপক্ষে ৪৭ বছর ২৮৪ দিন বয়সে অভিষেক হয়েছিল মিরান বক্সের।

[৬] এই টেস্টে জিম্বাবুয়েরের জন্য জয়টা খুবই দরকার। প্রথম টেস্টে ইনিংস ও ১১৬ রানে জিতে দুই ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে পাকিস্তান। সিরিজ বাঁচাতে তাই এই টেস্টে জয়ের বিকল্প নেই ব্রেন্ডন টেইলরদের। প্রতিবেদন লেখার সময় পাকিস্তানের স্কোর ৫ ওভারে বিনা উইকেটে ২ রান। ইমরান বাট ও আবিদ আলী ১ রান করে উইকেটে আছেন।

সর্বাধিক পঠিত