প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রথমবার কোনও প্রধানমন্ত্রী ফোন করেননি, অবাক হয়েছি, বললেন মমতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সোমবার নির্বাচনের সম্পূর্ণ ফলাফল প্রকাশ করা হয়। এরপরই এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান মমতা। মমতা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জানানো রাজনৈতিক সৌজন্য। বিশেষ করে তিনি যেহেতু নির্বাচনী প্রচারে একাধিক বার রাজ্যে এসেছেন। জানা যায় ব্যক্তিগতভাবে ফোন করেছেন দিল্লি, মহারাষ্ট্র, ওড়িশা, পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীরা। খবর আনন্দবাজারের।

পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল রোববার প্রকাশের পর অনেকেই মমতা ব্যানার্জিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

কালীঘাটে ওই সংবাদ সম্মেলনে মমতা বলেন, এই প্রথম দেখলাম কোনও প্রধানমন্ত্রী ফোন করেননি। আমি অবাক হয়েছি। এ কথা শুনে তাকে প্রশ্ন করা হয়, প্রধামন্ত্রী আপনাকে ফোন করেননি? জবাবে মমতা বলেন, না তিনি আমাকে ফোন করেননি। হয়তো ব্যস্ত ছিলেন।

এরপরই তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন, আমি অবশ্য কিছু মনে করিনি। জাতীয় এবং রাজ্যের স্বার্থে আমাদের যেখানে একসঙ্গে কাজ করার কথা সেখানে সহযোগিতা থাকলেই হলো। ফোন না করলেও অবশ্য মমতা এবং তৃণমূলকে টুইটারে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন মোদি।

অবশ্য এমন শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আরও অনেকেই। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনও। তবে সোমবারের সংবাদ সম্মেলনে কারা কারা তাকে ফোন করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তা জানান।

উল্লেখ্য, নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে মোদি তার বক্তৃতায় মমতাকে ‘দিদি ও দিদি’ বলে সম্বোধন করেছেন। এক সময়ে সেই ডাকে বিরক্তও হয়েছেন মমতা। কিন্তু জয়ের পর মোদি সৌজন্যমূলক ফোন করবেন এমনটা হয়তো তার কাছে প্রত্যাশিত ছিল।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত