প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফরিদপুরে পুলিশ হেফাজতে আসামি মৃত্যু : নির্যাতনের আলামত পায়নি তদন্ত কমিটি

হারুন-অর-রশীদ: ফরিদপুরের সালথায় তান্ডবের ঘটনায় আটক এক আসামির রিমান্ডে মৃত্যুর সাথে ‘শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের সম্পর্ক’ খুঁজে পায়নি পুলিশের তদন্ত দল।

রোববার (২ মে) বিকালে এক প্রেস ব্রিফিং এ পুলিশ সুপার আলিমুজ্জামান লিখিত বক্তব্যে জানান, নিহত আসামি আবুল হোসেন মোল্লার বাড়ি সালথার সোনাপুর ইউনিয়নের গোপালিয়া গ্রামে। তিনি গত ১৬ এপ্রিল গ্রেপ্তার হন এবং ২৮ এপ্রিল পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদালত।

সালথার সহিংস তান্ডবের মামলায় ডিবি পুলিশের রিমান্ডে থাকা অবস্থায় শনিবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে আসামি আবুল হোসেন মোল্লা (৪৮) মারা যান। তার মৃত্যুতে ডিবি পুলিশের এএসআই রমজান খন্দকার বাদী হয়ে একটি অপমৃত্যুর মামলা করেন।

আসামির মৃত্যুর দিনই ঘটনা তদন্তে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল পাশাকে প্রধান করে চার সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। সেই কমিটি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রতিবেদন দিয়েছে।

তিনি জানান, তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘আসামি আবুল হোসেনের মৃত্যুর সাথে পুলিশের কোনো ধরনের শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের সম্পর্ক নেই।’

পুলিশ সুপার আরও জানান, ওই তাণ্ডবের ঘটনায় মোট আটটি মামলা হয়েছে। এ সব মামলায় ৩৭০ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা আরও কয়েক হাজার জনকে আসামি রয়েছে। এ পর্যন্ত এসব মামলায় নাম উল্লেখ করা ৩১ জনসহ ১০৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত ৫ এপ্রিল সালথায় লকডাউনকে কেন্দ্র করে গুজব ছড়িয়ে সালথা থানা, উপজেলা পরিষদ ও সহকারী কমিশনারের (ভূমি) কার্যালয়ে তান্ডব চালানো হয়।

সর্বাধিক পঠিত