প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিশ্ব গড়পরতায় ইরানের নারী উদ্ভাবকের হার বেশি

রাশিদ রিয়াজ : ইরানে পুরুষ উদ্ভাবকের চেয়ে নারী উদ্ভাবকের হার বেশি এবং তাদের হার বিশ্ব ও পেটেন্টের দিক থেকে এগিয়ে থাকা দেশগুলোর তুলনায় বেশি। বিশ্বের জনসংখ্যার অর্ধেক নারী হলেও উদ্ভাবকের হার ৫০ শতাংশের অনেক কম। উদ্ভাবকের পেটেন্টের দিক থেকে নারীদের ক্ষেত্রে এ হার বিশ্বে গড়ে মাত্র ১৪ শতাংশ। নেতৃস্থানীয় দেশগুলোতে এ হার ১৮ শতাংশ। কিন্তু ইরানে এ হার ২১ শতাংশে পৌঁছেছে। তেহরান টাইমস

ইরানের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের এক জরিপে দেখা যায় ২ হাজারটি কেস বিবেচনা করে দেখা গেছে প্রতি চারজন পুরুষ উদ্ভাবকের সঙ্গে একজন নারী উদ্ভাবক উদ্ভাবনে জড়িত। কিন্তু বিশ্বে এ হার প্রতি ৬ জন পুরুষের তুলনায় ১ জন নারী। ইরানের বিজ্ঞানমন্ত্রী মানসুর গোলামি বলেন উচ্চতর শিক্ষা ও গবেষণা ইরানি নারীদের অংশগ্রহণের ফলে এবং উন্নয়ন প্রকল্পগুলোতে অংশগ্রহণ ২০০০ সালে ছিল ২৭ শতাংশ এবং তা ২০১৭ সালে বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়ায় ৩৯.৬ শতাংশ। শিক্ষার সকল ক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ ইরানে ১৯৭৮ সালে যেখানে ছিল ৫.৩ শতাংশ তা গত সাত বছরে ৫০ থেকে ৬০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

বছরে ইরানে সাড়ে চার হাজার নারী ডক্টরেট কোর্সে অংশ নিচ্ছেন এবং গত ৩ বছরে মোট গবেষণায় তা গড়ে ৪০ শতাংশ। উচ্চ শিক্ষায় নারীদের অংশ গ্রহণ ১৯৭৮ সালে প্রতি লাখে যেখানে ছিল ২৮১ জন সেখানে তা প্রায় ২০ গুণ বৃদ্ধি পেয়ে ৪ হাজার ৭৪৭ জনে দাঁড়িয়েছে। ১৮ থেকে ২৪ বছরের নারীদের শিক্ষায় অংশগ্রহণ একই সময়ে ২.১ শতাংশ থেকে ২০ গুণ বৃদ্ধি পেয়ে বর্তমানে ৪১.২ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। ১৯৭৮ সালে মাত্র ১৮ শতাংশ নারী উচ্চ শিক্ষায় ফ্যাকাল্টি মেম্বার হওয়ার সুযোগ পেত যা এখন বৃদ্ধি পেয়েছে ৩০ শতাংশে। বিজ্ঞানে নারীদের অংশগ্রহণ নিয়ে ইউনেস্কো ২০২০ প্রতিবেদন বলছে গবেষণা ও উন্নয়নে ইরানের নারীদের অংশ গ্রহণ ২০১৯ সালে ছিল ২৭.৭ এবং তা গত বছর বৃদ্ধি পায় ৩১.২ শতাংশ। বিশ্বে গড়ে তা ৩০ শতাংশ।

নলেজড বেসড কোম্পানিগুলোতে নারীদের অংশগ্রহণের ফলেই এটি সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছেন নারী ও পরিবার বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাসুমেহ এবতেকার।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত