প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভাই হত্যার বিচার চাইতে গিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন রেনু ও তার পরিবার

মাসুদ আলম : [২] ভুক্তভোগি রেনু বেগম বলেন, তিনি ও তার ভাই মিলন মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানের চরপানিয়া গ্রামে তাদের ভগ্নিপতি হাজি মো. বিল্লাল হোসেনের বাড়িতে বসবাস করে আসছিলেন। সিরাজদি খানের চাঁন্দের চরের মৃত সিরাজ মেম্বারের ছেলে স্থানীয় সন্ত্রাসী কামিজ উদ্দিন কামু, ফারুক হোসেন ও আবুল হোসেন এবং তাদের সহযোগিদের সঙ্গে বিল্লাল হোসেনের জমি সংক্রান্ত বিরোধ ছিলো।

[৩] তিনি বলেন, এর জের ধরে কামু ও ফারুকের লোকজন গত ৯ মার্চ হাজি বিল্লাল তার পরিবারের লোকজনকে মারধর করে। এই ঘটনায় বিল্লালের বড় ভাবী অজুফা বেগম বাদি হয়ে সিরাজদিখান থানায় মামলা করেন। মামলা তুলে না নেয়ায় গত ২৩ মার্চ গভীর রাতে ওই বাড়িতে হামলা চালায় কামু এবং ফারুক ও তাদের সহযোগিরা। তাদের অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর জখম হন মিলন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এছাড়া তার ঘরের চারিদিকে আগুন লাগিয়ে দেয় আসামিরা।

[৪] রেনু আরও বলেন, এ ঘটনায় কামু, ফারুক, রূপচান, আবুল হোসেনসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা করা হয়। এরপরই আসামিরা আরো বেপরোয়া হয়ে ওঠে। কয়েকজন আসামীকে গ্রেপ্তার হয়ে জেল হাজতে রয়েছেন। একইসঙ্গে তারা রেনু বেগম ও হাজী বিল্লালের ঘরের মূল্যবান মালামাল ও টাকা-পয়সা লুট করে নিয়ে যায়। এই ঘটনায় আরো একটি মামলা করা হয়। মামলা তুলে নিতে বাদি ও তার পরিবারকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত