প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] অ্যাপার্টমেন্ট সংস্কারের খরচ নিয়ে তদন্তের মুখে পড়তে যাচ্ছেন বরিস জনসন

লিহান লিমা: [২] ডাউনিং স্ট্রিটে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন সংস্কারের খরচ ও তহবিলের উৎস নিয়ে আনুষ্ঠানিক তদন্ত চালু করার ঘোষণা দিয়েছে ব্রিটেনের রাজনৈতিক ব্যয়ভার বিষয়ক ওয়াচডগ। ইউকে ইলেক্টোরাল কমিশন বুধবার এক বিবৃতিতে বলেছে, সংস্কারের ব্যয় নিয়ে ওঠা অভিযোগ ও সন্দেহের যথেষ্ট কারণ থাকায় এই বিষয়ে আমরা আনুষ্ঠানিক তদন্ত করতে যাচ্ছি। সিএনএন

[৩] ব্রিটেনের সংবাদমাধ্যগুলো জানিয়েছে, এই সংস্কারে মোট খরচ হয়েছে ২ লাখ ৮০ হাজার ডলার। কিভাবে এই সংস্কারের অর্থ যোগান দিয়েছে তা প্রকাশ করতে চাপের মুখে রয়েছেন বরিস। গত সপ্তাহে তার সাবেক একজন পরামর্শক বরিসের বিরুদ্ধে অনৈতিক ব্যবহারে অভিযোগ করলে এই সন্দেহের তীর আরো জোরালো হয়।

[৪] বরিসের সাবেক প্রধান পরামর্শক ডমিনিক কুমিংস বলেন, নিজের ফ্ল্যাটের সাজসজ্জার জন্য কনজারভেটিভ পার্টির তহবিল দাতাদের থেকে অর্থ নিয়েছেন বরিস।

[৫] ডাউনিং স্ট্রিটের মুখপাত্র এই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, ঐতিহাসিক এই সংস্কারে সম্পূর্ণ স্বচ্ছতা রক্ষা করা হয়েছে। সাজসজ্জার যে কোনো ব্যয় প্রধানমন্ত্রী ব্যক্তিগতভাবে দেখভাল করছেন। জনসনের মুুখপাত্র বলেছেন, দলের কোনো তহবিল এই সাজসজ্জায় ব্যয় করা হয় নি।

[৬] প্রতি বছর প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের সাজসজ্জা ও পরিচালনার জন্য ব্রিটিশ করদাতারা ৪২ হাজার ডলার প্রদান করেন। এর বাহিরে যে কোনো ব্যয় প্রধানমন্ত্রীর নিজের থেকে করা হয় বলেই ধারণা। ব্রিটেনের বিরোধী লেবার দল বলছে, বাকি টাকা জনসন কোথা থেকে দিয়েছেন তা প্রকাশ করতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত