প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দেশে কোভিড সংক্রমণ বাড়লে অক্সিজেনের সংকট তৈরি হবে: ইসলাম অক্সিজেনের সিইও বদর উদ্দিন

মিনহাজুল আবেদীন: [২] দেশের অক্সিজেন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ইসলাম অক্সিজেনের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা বদর উদ্দিন আল হোসেন মঙ্গলবার বিবিসি বাংলায় বলেন, এক সপ্তাহ আগের তুলনায় দেশে এখন অক্সিজেনের চাহিদা কিছুটা কমে এসেছে। আগের সঙ্গে তুলনা করলে বলা যায়, চাহিদা নেমে এসেছে তিন ভাগের একভাগে।

[৩] তিনি বলেন, ইতোমধ্যে দু’টি কারখানা চালু করা হয়েছে। দরকার হলে চীন ও সিঙ্গাপুর থেকে অক্সিজেন আমদানি করা হবে।

[৪] তথ্য মতে, সাধারণ পরিস্থিতিতে বাংলাদেশে গড়ে প্রতিদিন ১০০-১২০ টনের মতো অক্সিজেনের প্রয়োজন হয়। কিন্তু মার্চ ও এপ্রিলের শুরুতে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় দৈনিক চাহিদা ৩০০ টন পর্যন্ত বেড়েছিলো। বর্তমানে চাহিদা আগের অবস্থায় ফিরে এসেছে।

[৫] সরকারি হাসপাতালগুলোতে অক্সিজেন সরবরাহ প্রতিষ্ঠানগুলো নিজেরা উৎপাদন করে এবং বাকী অংশ ভারত থেকে আমদানি হয়। প্রতি মাসে বেনাপোল বন্দর দিয়ে প্রায় ৩০ হাজার মেট্রিক ট্রন অক্সিজেন ভারত থেকে আসে। যা বর্তমানে বন্ধ রয়েছে।

[৬] স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক ও মুখপাত্র ডা. মোহাম্মদ রোবেদ আমিন বলেন, ভারত অক্সিজেন সরবরাহ বন্ধ করলে কোনও সমস্যা হবে না। তারপরেও আমরা সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়ে রাখছি।

[৭] তিনি বলেন, দেশে ইন্ডাস্ট্রিয়াল অক্সিজেন প্রস্তুতকারি বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কথা হয়েছে। প্রয়োজনে তারাও মেডিকেল অক্সিজেন সরবরাহ করবে।

[৮] স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক পরিচালক ডা. বেনজীর আহমেদ বলেন, ভারতের অবস্থা দেখে বাংলাদেশের এখনই পরিকল্পনা নেয়া উচিত। প্রথমে দেখতে হবে আমাদের দৈনিক রোগীর সংখ্যা কতো, তাদের কতোজনের অক্সিজেন দরকার হবে, কি পরিমাণ অক্সিজেন লাগবে, আগামী ১৫ দিন বা একমাসে কতোটা অক্সিজেন লাগবে, এইসব কিছু বিবেচনায় রেখে একটি পরিকল্পনা করতে হবে। সম্পাদনা: মেহেদী হাসান

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত