প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়

মাহিন সরকার: [২] হারারেতে রোববার ২৫ এপ্রিল জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২৪ রানে তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি জিতলো পাকিস্তান। তাতে তিন ম্যাচের সিরিজ ২-১ এ জয় করলো বাবর আজমের দল। দক্ষিণ আফ্রিকায় তারা ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতেছিল।

[৩] মোহাম্মদ রিজওয়ান ও বাবরের ফিফটিতে আগে ব্যাট করে ৩ উইকেটে ১৬৫ রান করে পাকিস্তান। জবাবে ৭ উইকেটে ১৪১ রানে থামে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে।

[৪] ওপেনার ওয়েসলি মাধেভেরের ফিফটিতে জিম্বাবুয়ে লড়াইয়ে ফেরে। দলীয় ৩৭ রানে তারিসাই মুসাকান্দা (১০) আউট হলে তাদিওয়ানাশে মারুমানির সঙ্গে ৬৫ রানের জুটি গড়েন তিনি। ১৪তম ওভারের তৃতীয় বলে মারুমানির (৩৫) বিদায়ে ২ উইকেটে স্বাগতিকদের স্কোর ছিল ১০২। ১৬তম ওভারে তাদের দুটি উইকেট তুলে নিয়ে ব্রেক থ্রু আনেন হাসান আলী।

[৫] মাধেভেরে ৫৯ রানে আউট হন, রেগিস চাকাভা মারেন ডাক। ১১০ রানে ৪ উইকেট হারানোর ধাক্কা আর কাটাতে পারেনি স্বাগতিকরা। শেষ দুই ওভারে জিম্বাবুয়ে আরও তিন উইকেট হারায়। হারিস রউফ নেন শেষ ওভারে দুই উইকেট।

[৬] পাকিস্তানের পক্ষে ৪ ওভারে ১৮ রান দিয়ে চার উইকেট নেন হাসান। হারিস পান দুটি উইকেট।

[৭] এর আগের দুই ম্যাচে পাকিস্তানের ব্যাটিং ব্যর্থতা ছিল চোখে পড়ার মতো। আগের ম্যাচে তো ৯৯ রানে অলআউট হয়ে জিম্বাবুয়ের কাছে প্রথমবার টি-টোয়েন্টিতে হারের তিক্ত অভিজ্ঞতা হয় তাদের। রোববার হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে সিরিজ নির্ধারণী লড়াইয়ে স্বাগতিকদের ১৬৬ রানের টার্গেট দিতে দাপট দেখিয়েছেন রিজওয়ান ও বাবর।

[৮] টস জিতে ব্যাট করতে নেমে পঞ্চম ওভারের শেষ বলে ওপেনার শারজিল খান (১৮) লুক জংউইর শিকার হন। ৩৫ রানে উদ্বোধনী জুটি ভাঙলে রিজওয়ানের সঙ্গে বাবর কাটিয়ে দেন বাকি সময়, দুজনেই করেন হাফ সেঞ্চুরি। যদিও শেষ ওভারে জংউই জোড়া আঘাত হানেন। তাতে বাবর ও ফখর জামান সাজঘরে ফেরেন। ৩ উইকেটে ১৬৫ রান করে পাকিস্তান।

[৯] দ্বিতীয় উইকেটে ১২৪ রান স্কোরবোর্ডে জমা করেন রিজওয়ান ও বাবর। ৩৯ বলে চারটি চারে হাফ সেঞ্চুরি করেন রিজওয়ান। তিনি অপরাজিত থাকেন ৬০ বলে ৮৯ রান করে, ছিল ৬ চার ও ২ ছয়। ইনিংসের তিন বল বাকি থাকতে লং অনে বাউন্ডারির সীমানায় রায়ান বার্লের ক্যাচ হন ৪৪ বলে হাফ সেঞ্চুরি করা বাবর। ৪৬ বল খেলে ৫২ রান করেন তিনি।

[১০] ফখর প্রথম বলেই বার্লের হাতে ক্যাচ দেন। টানা দুই বলে উইকেট পেয়ে হ্যাটট্রিকের আশায় পঞ্চম বল করেন জংউই, কিন্তু তার স্লোয়ার বলে ২ রান নেন রিজওয়ান। অন্য প্রান্তে ছিলেন হাসান।

[১১] আগের ম্যাচে চার উইকেট নেওয়া জংউই ই ম্যাচে ৪ ওভারে ৩৫ রান দিয়ে পান ৩ উইকেট।

[১২] ম্যাচসেরা হাসান আলী ও সিরিজসেরা হয়েছে মোহাম্মদ রিজওয়ান। – ক্রিকইনফো

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত