প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] তৃতীয় ঢেউ আরো ভয়াবহ হয়ে দেখা দিতে পারে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

শিমুল মাহমুদ: [২] করোনার প্রথম ঢেউ সক্ষমতার সঙ্গে সামাল দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু স্বাস্থ্যবিধি মানতে মানুষ অনীহা থাকায় দ্বিতীয় ঢেউ এসেছে। দ্বিতীয় ঢেউ কেন হলো, তা বুঝতে পারলে তৃতীয় ঢেউ থেকে রক্ষা মিলবে। করোনার হাত থেকে বাঁচতে চাইলে, দেশের প্রতিটি মানুষকে করোনা নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত সঠিকভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

[৩] রোববার ‘বিশ্ব ম্যালেরিয়া দিবস’ উপলক্ষে স্বাস্থ্য অধিদফতর আয়োজিত আলোচনা সভায় অনলাইন জুম অ্যাপে যুক্ত হয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক এসব কথা বলেন।

[৪] মন্ত্রী বলেন, দেশে মাত্র ২টি জেলা বাদে সকল জেলা থেকে ম্যালেরিয়া নির্মূল করা সম্ভব হয়েছে উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, ‘ম্যালেরিয়া এখন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। দেশে ২০০৮ সালের তুলনায় এখন ৯৩ শতাংশ ম্যালেরিয়া রোগী কমেছে এবং ৯৪ শতাংশ মৃত্যু কমেছে। দেশের মাত্র ২টি জেলাতে এখন ম্যালেরিয়া রয়েছে। সব মিলিয়ে আগামী ২০৩০ সালের মধ্যেই দেশ থেকে ম্যালেরিয়া পুরোপুরি নির্মূল করা সম্ভব হবে।’

[৫] স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মো. খুরশিদ আলম বলেন, দেশে এখন করোনা মহামারি চলছে। তবে ২০৩০ সালের মধ্যে যদি আমরা ম্যালেরিয়া নির্মূলে এসডিজি অর্জন করতে চাই, তাহলে করোনার মধ্যে অন্য কার্যক্রমগুলো চালিয়ে যেতে হবে।

[৬] তিনি বলেন, ম্যালেরিয়া দিনদিন আমাদের দেশ থেকে নির্মূল হচ্ছে। তবে নির্মূল হওয়া মানেই শেষ হয়ে যাওয়া নয়। কারণ আমরা দেখছি মশা কিন্তু শতভাগ নির্মূল হয় না। তাই আমাদের সবসময় সচেষ্ট থাকতে হবে। এটা নিয়ে ফান্ডিং বাড়াতে হবে।

সর্বাধিক পঠিত