প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সাহরিতে ‘ছোট মাছ’ নিয়ে বাবা-ছেলের বাগবিতণ্ডা, সকালে বাঁশবাগানে লাশ

ডেস্ক রিপোর্ট: বগুড়ার ধুনট উপজেলায় সাহরিতে ছোট মাছের তরকারি নিয়ে বাবা ও ছেলের মাঝে তর্কের জেরে জোনাক আলী (১৯) নামে এক কলেজছাত্র গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। নিহত জোনাক আলী জোড়শিমুল গ্রামের আফজাল হোসেন মন্ডলের ছেলে। জোনাক আলী চিকাশি টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিএম কলেজ থেকে এ বছর এইচএসসি পাশ করে। কালের কণ্ঠ

আজ শুক্রবার দুপুরের পর ধুনট থানা পুলিশ জোনাক আলীর ঝুলন্ত মৃতদেহ ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। এর আগে ভোর ৫টার দিকে বাড়ির পাশে বাগানের ভেতর গাছের ডালের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় জোনাক আলীর ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখে থানায় খবর দেন তার স্বজনরা।

থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জোনাক আলী বৃহস্পতিবার রাতে বাড়িতে মা-বাবার সঙ্গে সাহরি খেতে বসে। মা তাকে ছোট মাছের তরকারি দিয়ে ভাত খেতে দেয়। কিন্ত জোনাক আলী ছোট মাছ দিয়ে ভাত খাবে না বলে তার মা-বাবাকে জানায়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে জোনাক আলীকে তার বাবা বকাবকি করে। এ নিয়ে বাবা ও ছেলের মাঝে তর্কবিতর্কের ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে সাহরি খেয়ে বাড়ির সবাই ঘুমিয়ে পড়লে জোনাক আলী বাড়ির পাশে বাঁশ বাগানে গিয়ে গাছে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে।

ধুনট থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নুরুজ্জামান সরদার বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে জোনাক আলীর মৃতদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যু (ইউডি) মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। পারিবারিক কলহের কারণে এই অপমৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত