প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] আগৈলঝাড়ায় স্বামীর পরকীয়ায় বাঁধা; হামলায় স্ত্রী, শ্বশুরসহ আহত ৫ জন

এসএম শামীম:[২] জেলার আগৈলঝাড়ায় স্বামীর পরকীয়ায় বাঁধা এবং দাবীকৃত যৌতুকের টাকা না দেয়ায় স্বামীর হামলায় স্ত্রী, মেয়ে ও শ্বশুরসহ আহত হয়েছে ৫জন। আহত ২জনকে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

[৩] আগৈলঝাড়ায় স্বামীর পরকীয়ায় বাঁধা; হামলায় স্ত্রী, শ্বশুরসহ আহত ৫জন আহত ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মোল্লাপাড়া গ্রামের বিনোদ মন্ডলের মেয়ে রূপা মন্ডলের সাথে বাসাইল গ্রামের নীল কান্ত বাড়ৈর ছেলে বাবু বাড়ৈর সাথে ৫ বছর পূর্বে ধর্মীয়রীতিতে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই ব্যবসা করার জন্য যৌতুকের জন্য চাপ প্রয়োগ করে স্ত্রী রূপা মন্ডলের পরিবারের উপর। দাবীকৃত টাকা না দেয়ায় চলে স্ত্রীর উপর অমানুষিক নির্যাতন।

[৪] বিয়ের ২বছর পর তার বড় ভাই কুয়েত প্রবাসী নিতাই বাড়ৈর বিবাহিতা স্ত্রী মন্দিরা বাড়ৈর সাথে পরকীয়া সর্ম্পক গড়ে উঠে বাবু বাড়ৈর। এই পরকীয়া সর্ম্পক বাঁধা দেয়ায় প্রায় সময়ই নির্যাতনের স্বীকার হতো রূপা মন্ডল। মঙ্গলবার দুপুরে দাবীকৃত যৌতুকের টাকা ও বড় ভাইর স্ত্রীর সাথে পরকীয়ায় আসক্ত এ নিয়ে ঝগড়া হলে রূপা মন্ডলকে মারধর করে। রূপা মন্ডল আত্মরক্ষার্থে পাশের কালাম মৃধার বাড়ি আশ্রয় নেয়।

[৫] তখন তার পিতা বিনোদ মন্ডলকে খবর দেয়া হলে সে তার মেয়ে রূপাকে নিয়ে বাবু বাড়ৈর বাড়িতে গিয়ে মারধরের কারন জানতে চাইলে বাবু বাড়ৈ, নীল কান্ত বাড়ৈ, নরত্তোম বাড়ৈ, মন্দিরা বাড়ৈ ও ডালিমের নেতৃত্বে তাদের উপর হামলা চালিয়ে স্ত্রী রূপা মন্ডল, তার মেয়ে তোরা বাড়ৈ ও শ্বশুর বিনোদ মন্ডলকে মারধর করে আহত করে।

[৬] এসময় তাদের উদ্ধার করতে গিয়ে স্থানীয় প্রদীপ সমদ্দার ও শামীম মৃধা আহত হয়। পরে আহত রূপা মন্ডল, তার মেয়ে তোরা বাড়ৈ ও শ্বশুর বিনোদ মন্ডলকে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এঘটনায় বিনোদ মন্ডল বাদী হয়ে আগৈলঝাড়া থানায় বাবু বাড়ৈসহ ৫জনকে অভিযুক্ত করে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। সনম্পাদনা:অনন্যা আফরিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত